ঢাকা, রোববার, ৩১ মে ২০২০ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ছাত্রীকে দুই শিক্ষকের যৌন হয়রানি


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২:২২ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার | আপডেট: ১২:৪৯ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার
ছাত্রীকে দুই শিক্ষকের যৌন হয়রানি ছবি- রায়েন্দা সরকারী পাইলট হাই স্কুল

বাগেরহাটের শরণখোলায় দশম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন শিক্ষার্থীর মা।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে রায়েন্দা সরকারী পাইলট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. সুলতান আহম্মেদ (বিএসসি) ও সহকারী শিক্ষক মো. শাহিনুজ্জামান শাহিনের বিরুদ্ধে শরনখোলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এ মামলা দায়ের করা হয়।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা জানান, ১৮ জানুয়ারি তার মেয়ে রায়েন্দা সরকারী পাইলট হাই স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নাম দিতে যায়। ওই সময় শিক্ষক শাহিনুজ্জমান শাহীন তাকে ডেকে নিয়ে নোংরা কথাবার্তা বলেন এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দেন। বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে জানালে তিনিও শিক্ষক শাহিনের পক্ষ নিয়ে ওই ছাত্রীকে গালাগাল করে স্কুল থেকে বের করে দেন। লজ্জায় ওই ছাত্রী কীটনাশক পানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

শিক্ষক শাহিনুজ্জামান শাহিন বলেন, আমি ওই ছাত্রীকে বলেছি তোমার নাম দলীয় নৃত্যে দেয়া হয়েছে। আজ অন্যদের বাছাই। তুমিসহ যারা অন্য বিষয়ে নাম দিয়েছ তারা পরে আসবে। কি কারণে আমার নামে মামলা হলো জানি না।

প্রধান শিক্ষক মো. সুলতান আহম্মেদ বলেন, ওই ছাত্রী আমার কাছে কোন অভিযোগ করেনি। বরং অসুস্থতার খবর শুনে তাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলাম। শ্লীলতাহানির অভিযোগ তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কোনো শিক্ষক ছাত্রীর সঙ্গে খারাপ আচরণ করলে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

শরনখোলা থানার ওসি এস.কে আব্দুল্লাহ আল সাইদ বলেন, শ্লীলতাহানির অভিযোগ আমলে নিয়ে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

অমৃতবাজার/এমআর