ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

খুলনার সামনে রাজশাহীর ১৭১ রানের চ্যালেঞ্জিং টার্গেট


অমৃতবাজার স্পোর্টস

প্রকাশিত: ০৯:৩৯ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২০, শুক্রবার | আপডেট: ০৯:৫৪ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২০, শুক্রবার
খুলনার সামনে রাজশাহীর ১৭১ রানের চ্যালেঞ্জিং টার্গেট

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ট্রফিটা পেতে ১৭১ রান পর্যন্ত ছুটতে হবে খুলনা টাইগার্সকে। ফাইনালে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উকেট হারিয়ে ১৭০ রান করে বিরতিতে গেছে প্রতিপক্ষ রাজশাহী রুয়্যালস।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭ টায় শুরু হওয়া ম্যাচে প্রথমে টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন খুলনার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। টসে জিতেও কেন ফিল্ডিং নিয়েছেন, তা বুঝা যায় খেলার তৃতীয় ওভারেই। মোহাম্মদ আমিরের বলে আফিফের ক্যাচ নেন মেহেদী হাসান। দলীয় ১৪ রানে ফেরেন রাজশাহীর প্রথম ব্যাটসম্যান।

এরপরই রাজশাহীর হাল ধরেন ইরফান শুক্কুর। ওপেনার লিটন দাসের সঙ্গে ৪৯ রানের জুটি বাঁধেন তরূণ বা-হাতি। খেলার ১০ম ওভারে খুলনার তরুণ পেসার শহিদুল ইসলামের প্রথম বলেই লিটন দাস ফিরে গেলেও ইরফান থেকে যান। নাজমুল হাসান শান্ত দূর্দান্ত ক্যাচ নিয়ে ফেরান তাকে।

৯ বলে ১৩ রান নিয়ে ফিরে যান এরপর নামা শোয়েব মালিকও। ক্রিজে নামেন রাজশাহীর সবচাইতে বড় ভড়সা আন্দ্রে রাসেল। কিন্তু স্কোরবোর্ডে আর মাত্র ৫ রান যোগ করেন ৩৫ বলে ৫৫ রান করে ফেরেন দূর্দান্ত খেলতে থাকা বাংলাদেশের তরুণ ব্যাটসম্যান শুক্কুর।

রাসেলকে সঙ্গ দিতে পঞ্চম উইকেটে মাঠে নামেন মোহাম্মদ নাওয়াজ। ২০ বলে ৪১ রানের দারুণ এক ঝড়ো ইনিংসে দলকে এনে দেন লড়াই করার মতো পুঁজি। তার ঝড়ো ইনিংসের মাঝে রাসেল খেলেন ১৬ বলে ২৭ রানে মাঝারি মানের এক ইনিংস। ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান হার্ড হিটারের বিচারে তার এই ইনিংসকে সাধারণ মানেরই বলতে হয়। মাঝে ৬ রানে ক্যাচ দিয়েছিলেন অবশ্য। সহজ ক্যাচটা ফেলে তাকে নতুন জীবন দেন লিটনকে দূর্দান্ত ক্যাচে ফেরানো সেই শান্ত।

অবশেষে ২০ ওভার শেষে বিপিএলের ট্রফিটাকে খুলনার থেকে ১৭০ রান দূরে নিয়ে যেতে সক্ষম হন রাজশাহীর প্লেয়াররা। শেষ খবর ছাপা পর্যন্ত ৬ ওভার ৪ বলে শেষে খুলনা টাইগার্সের সংগ্রহ ২ উইকেট হারিয়ে ৫৪। ট্রফিটা ঘরে নিয়ে যেতে  আরও ১৩ ওভার ২ বলে ১১৭ রান তুলতে হবে মুশফিক বাহিনীকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

রাজশাহী রয়্যালস: ২০ ওভারে ১৭০/৪ (লিটন ২৫, আফিফ ১০, শুক্কুর ৫২, মালিক ৯, রাসেল ২৭*, নওয়াজ ৪১*; আমির ৪-০-৩৫-২, ফ্রাইলিঙ্ক ৪-০-৩৩-১, তানভির ১-০-১১-০, শফিউল ৪-০-৩৮-০, মিরাজ ৩-০-২৭-০, শহিদুল ৪-০-২৩-১)।

অমৃতবাজার/এসএইচএম/এএস