ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

লেভারকুসেনের সাথে জুভেন্টাসের দাপুটে জয়


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:২২ এএম, ০২ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার
লেভারকুসেনের সাথে জুভেন্টাসের দাপুটে জয়

 

চ্যাম্পিয়নস লিগে দুর্দান্ত জয় পেয়েছে জুভেন্টাস। নিজেদের মাঠে লেভারকুসেনকে সহজেই হারালো তারা। মৌসুমে প্রথম জয় জুভরা।

মঙ্গলবার রাতে হওয়া গ্রুপপর্বের এই ম্যাচে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত জুভেন্টাসের দখলেই বল ছিল।

মুহূর্মুহূ আক্রমণ করতে দেখা গেছে হিগুয়েইন, ফেডরিকোদের।

হিগুয়েইন, ফেডরিকো বের্নারদেস্কি ও রোনাল্ডোর এক এক করে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জুভেন্টাস।

ম্যাচের শুরুতে কিছুটা কারিশমা দেখায় লেভারকুসেন। বলের দখল নিয়ে খেলে তারা। কিন্তু খেলা বেশক্ষণ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেনি লেভারকুসেন।

দেখতে দেখতে লেভারকুসেনের খেলোয়াড়দের অজান্তেই যেন বলের দখল নিয়ে নেয় ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোরা।

ম্যাচের ১৭ মিনিটে আর্জেন্টাইন তারকা হিগুয়েইন গোলমুখ খুলেন। মাঝমাঠ থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের নিচু শটে ঠিকানায় পাঠান হিগুয়েইন।

খেলার ৩৯ মিনিটে ফের সুযোগ পান হিগুইয়েন। তবে লেভারকুসেনের গোলরক্ষকের চমৎকার সেভে জোড়া গোল বঞ্চিত হন হিগুইয়েন।

১-০তে এগিয়ে থেকে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে ক্ষিপ্রতা নিয়ে খেলতে দেখা যায় রোনাল্ডোকে। লেভারকুসেনের গোলপোস্ট বরাবর বেশ কয়েকবার চেষ্টাও করেন। তবে তার প্রতিটি শটই আটকে দেন গোলরক্ষক।

ম্যাচের ৫৭ মিনিটের মাথায় সিআরসেভেনের চমৎকার একটি শত আটকে দিয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ হওয়া থেকে দলকে রক্ষা করেন লেভারকুসেনের গোলরক্ষক।

তবে ৬১ মিনিটের মাথায় সফল হন পর্তুগিজ তারকা। তবে তিনি নিজে গোল করতে পারেননি। তার বানিয়ে দেয়া বল ডি বক্সে পেয়ে সেটিকে গোলে পরিণত করেন বের্নারদেস্কি।

এরপর খেলাযর ৭৫ মিনিটে সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন রোনাল্ডো। গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে পারেননি তিনি। তবে খেলা শেষ হওয়ার দুই মিনিট আগে পুরো ম্যাচ জুড়ে গোলের দেখা না পাওয়া দলের সেরা খেলোয়াড় সার্থক হন। গোলের দেখা পান তিনি। বদলি খেলায়োড় দিবালার দুর্দান্ত পাসে লেভারকুসেনের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন এই পুর্তগিজ সেনা।

৩-০ তে বড় ব্যাবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জুভেন্টাস। গ্রুপপর্বে প্রথম জয় পেল জুভেন্টাস। প্রথম ম্যাচটিতে সমতা নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল রোনাল্ডোর দল।

অমৃতবাজার/এএস