ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানকে ৩০৮ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৭:৩৩ পিএম, ১২ জুন ২০১৯, বুধবার
পাকিস্তানকে ৩০৮ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া

 

কাউন্টি গ্রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। কিন্তু আমির-আফ্রিদিদের বোলিংকে ব্যর্থ করে অস্ট্রেলিয়াকে প্রথমেই দুরন্ত সূচনা এনে দিয়েছিলো দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নার।

দুই ওপেনার তুলে নেন ১৪৬ রান। অ্যারন ফিঞ্চ ৮২ করে আউট হন। সেঞ্চুরি তুলে নেন ডেভিড ওয়ার্নার। তিনি ফেরেন ১০৭ রান করে। তবে স্মিথ-ম্যাক্সওয়েলরা ব্যাটে এসেই ফিরে যান। সেই ডেভিট ওয়ার্নারের সেঞ্চুরির উপর ভর করেই ৩০৭ রান করে অস্ট্রেলিয়া।

এর আগে এক হার, এক জয় এবং এক ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে পাকিস্তানের। আবার বিশ্বকাপ জয়ী অস্ট্রেলিয়া সর্বশেষ ম্যাচে হেরেছে ভারতের বিপক্ষে। দু`দলের জন্য তাই সেমিফাইনালে যাওয়ার পথে এ ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ বৃষ্টির কারণে ম্যাচ ভেসে গেলে যে কোন সময় বিপাকে পড়তে পারে ফেবারিট দলও।

এর আগে আফগানিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বকাপযাত্রা করে অস্ট্রেলিয়া। পরের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে জয়ের ধারা বজায় রাখে তারা। তবে ভারতের বিপক্ষে হেরে কক্ষচ্যুত হয় ফিঞ্চ বাহিনী। এ ম্যাচে জিতে ফ্রন্টফুটে আসতে মরিয়া তারা।

বিশ্বকাপটা যাচ্ছেতাই শুরু হয় পাকিস্তানের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৭ উইকেটে হেরে মিশন শুরু করে দলটি। তবে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেই ফেবারিট ও স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে আত্মবিশ্বাস ফিরে পায় তারা। পরে শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়। ফলে জয় পেতে মুখিয়ে তারা।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স, রেকর্ড-পরিসংখ্যানে ঢের এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। যোজন-যোজন পিছিয়ে থেকেই অজিদের মোকাবেলা করছে সরফরাজরা। বিশ্বকাপের আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ফিঞ্চদের কাছে ৫-০তে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে তারা।

এছাড়া ওয়ানডেতে দুদলের ১০৩ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ৬৭টিতে জয়ী হয়েছে। বিপরীতে পাকিস্তানের জয় মাত্র ৩২টিতে। তবে তা আমলে নিচ্ছে না আনপ্রেডিক্টেবল দলটি। বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ডিফেন্ডিং বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিন্দুমাত্র ছাড় দিতে নারাজ তারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
অস্ট্রেলিয়া: ৪৯ ওভারে ৩০৭ (ফিঞ্চ ৮২, ওয়ার্নার ১০৭, স্মিথ ১০, ম্যাক্সওয়েল ২০, মার্শ ২৩, খাওয়াজা ১৮, কেয়ারি ২০, কোল্টার-নাইল ২, কামিন্স ২, স্টার্ক ৩, রিচার্ডসন ১*; আমির ১০-২-৩০-৫, আফ্রিদি ১০-০-৭০-২, হাসান ১০-০-৬৭-১, ওয়াহাব ৮-০-৪৪-১, হাফিজ ৭-০-৬০-১, মালিক ৪-০-২৬-০)

অমৃতবাজার/এএস