ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে সিটির কাছে হেরেও সেমিতে টটেনহ্যাম


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:০১ এএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৫:১৯ এএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার
শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে সিটির কাছে হেরেও সেমিতে টটেনহ্যাম

 

শ্বাসরুদ্ধকর এক লড়াইয়ের সাক্ষ্মী হলো ইতিহাদ স্টেডিয়াম, যার পরতে পরতে ছিল উত্তেজনার ছোঁয়া। প্রথম ১১ মিনিটে হলো চার গোল। ১০ মিনিট পর আরেকটি। ম্যাচের চিত্রপট পাল্টালো বারবার। শেষ পর্যন্ত রোমাঞ্চকর এক জয় তুলে নিল ম্যানচেস্টার সিটি; কিন্তু লক্ষ্য ছোঁয়া হলো না। মূল্যবান অ্যাওয়ে গোলের সুবাদে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে উঠল টটেনহ্যাম হটস্পার।

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে শেষ আটের ফিরতি পর্বে ৪-৩ গোলে জিতে সিটি। দুই লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৪-৪। প্রতিপক্ষের মাঠে গোল করায় শেষ চারের টিকেট পায় টটেনহ্যাম। প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ১-০ গোলে জিতেছিল মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল ।

গোল উৎসবের শুরু চতুর্থ মিনিটে। সতীর্থের সঙ্গে একবার বল দেওয়া নেওয়া করে ডি-বক্সে রক্ষণচেরা পাস বাড়ান কেভিন ডি ব্রুইনে। জায়গা বানিয়ে ডান পায়ের জোরালো শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন স্টার্লিং।

সিটির দুই লেগ মিলিয়ে ১-১ সমতা টানার স্বস্তি স্থায়ী হয় মাত্র তিন মিনিট। আক্রমণ রুখতে গিয়ে ফরাসি ডিফেন্ডার এমেরিক লাপোর্ত বল ঠেলে দেন হিউং-মিনের পায়ে। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার নেওয়া নিচু সোজাসুজি শট গোলরক্ষক এদেরসনের পায়ে লেগে ভিতরে ঢোকে।

আর দশম মিনিটে দারুণ এক গোলে স্বাগতিক সমর্থকদের স্তব্ধ করে দেন হিউং-মিন। ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের পাস ডি-বক্সে পেয়ে ডান পায়ের উঁচু শটে দূরের পোস্ট দিয়ে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন তিনি। প্রথম লেগে একমাত্র জয়সূচক গোলটিও করেছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ার এই ফরোয়ার্ড।

আক্রমন এবং পাল্টা আক্রমনে দুই দলই এক অপরকে গোল করতে থাকে। একসময় দুই দলের গোল সংখ্যা দ্বারায় সিটি ৪, টটেনহ্যাম ৩ গোল। খেলার শেষ মুহুর্তে অর্তরিক্ত সময়ে অফসাইডের ফাদে পড়া ম্যানচেষ্টার সিটির গোলটি পরিত্যাক্ত না হলে ফলাফল ভিন্নও হতে পারত। দুর্দান্ত এ জয়ের পরও যে বিদায় নিতে হলো ইউরোপ সেরার মঞ্চ থেকে।   

একই সময়ে শুরু হওয়া অন্য ম্যাচে পোর্তোকে তাদেরই মাঠে ৪-১ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলে ৬-১ ব্যবধানে এগিয়ে সেমি-ফাইনালে উঠেছে লিভারপুল।

ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে লিভারপুলের প্রতিপক্ষ হবে বার্সেলোনা।

অমৃতবাজার/এএস