ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ | ১ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ফিলিস্তিনের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৫:২৫ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার
ফিলিস্তিনের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বাংলাদেশকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ফিলিস্তিন। আজ বুধবার কক্সবাজার জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের প্রথমার্ধেই মিডফিল্ডার মোহাম্মদ বালাহর হেডের সুবাদে গোল পায় ফিলিস্তিন। তবে পরে অনেক সুযোগ সৃষ্টি করতে পারলেও সমতায় ফিরতে পারেনি জেমি ডের শিষ্যরা। দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি সময়ে আরেকটি গোল করেন সামেহ। তাতেই ২-০ গোলে হারতে হয়েছে জামাল ভূঁইয়া-তপু বর্মণদের।

কক্সবাজারের বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় সেমিফাইনালটা অসম শক্তির লড়াই ছিল বলতে হবে। র‌্যাংকিংয়ে একশ’তে থাকা ফিলিস্তিনের সামনে ১৯৩ র‌্যাংকিংয়ে থাকা বাংলাদেশের দাঁড়াতে পারার সম্ভাবনা কমই ছিল। তবে দেশের মাটিতে, চেনা কন্ডিশনে, পরিচিত জল-হাওয়া ছিল জামাই ভূঁইয়াদের আত্মবিশ্বাসের খোরাক। কক্সবাজারে স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ দলের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচটি তাই স্মরণীয় করে রাখার প্রত্যাশা ছিল তপুদের।

কিন্তু ম্যাচের প্রথমার্ধে তাতে এক ধাক্কা খায় জেমি ডে’র শিষ্যরা। প্রথমে মনে হয়েছিল কাদা-পানির মাঠে বাংলাদেশেরই লাভবান হবে। যদিও অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার যুক্তি, নিন্মচাপে আবহাওয়া ঠান্ডা থাকলে লাভবান হবে ফিলিস্তিন। কন্ডিশন থেকে বাংলাদেশ সুবিধা পাবে যদি আবহাওয়া গরম থাকে। ঝিরিঝিরি বৃষ্টি আর নরম আবহাওয়া মিলিয়ে ফিলিস্তিন হয়তো সেই সুবিধাই পেয়েছে। ম্যাচের প্রথমার্ধের এক গোল এবং শেষ বাঁশি বাজার আগে গোল দিয়ে উঠে যায় ফাইনালে।

ম্যাচে ফিলিস্তিনি জিতলেও গ্যালারিতে থাকা দর্শকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তারা। ম্যাচের সবচেয়ে সুন্দরতম দৃশ্য হয়তো ওটাই। ম্যাচ শেষে দুই দলের খেলোয়াড়রা স্টেডিয়ামে আসা দর্শকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। দর্শক প্রিয়তা ফিরে পেলে আবার বাংলাদেশের ফুটবল ফিরে আসবে এটাই হয়তো জামাল ভূঁইয়া-তপুরা বোঝাতে চেয়েছেন। নিন্মচাপ মাথায় নিয়ে কক্সবাজার স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে আসা গ্যালারি ভর্তি দর্শকদেরও প্রাপ্য ওই ধন্যবাদ।

অমৃতবাজার/সুজন