ঢাকা, বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮ | ১২ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

২০২৬ বিশ্বকাপ উপলক্ষে ১৪টি স্টেডিয়াম প্রস্তুতের দাবি মরক্কোর


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৬:৩১ পিএম, ১৮ মার্চ ২০১৮, রোববার
২০২৬ বিশ্বকাপ উপলক্ষে ১৪টি স্টেডিয়াম প্রস্তুতের দাবি মরক্কোর

যেকোন মূল্যেই ২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের জন্য নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণে জোর প্রস্তুতি শুরু করেছে উত্তর আফ্রিকান দেশ মরক্কো। ইতোমধ্যেই তারা দাবি জানিয়েছে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য ১৪টি স্টেডিয়াম তার প্রস্তুত করতে যাচ্ছে। যদিও ঐ বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকো যৌথ বিডে অংশ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

ফিফার কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে নিজেদের বিড জমার দেবার দু’দিন পরে মরক্কো বিড কমিটির প্রধান মোলে হাফি এলালামি দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে নিজেদের প্রস্তুতি ও প্রতিশ্রুতি নিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই বিশ্বকাপ আয়োজনে মরক্কোর সব ধরনের সুযোগ রয়েছে।

উত্তর আফ্রিকান রাজ্যটি বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য ১২টি শহরের ১৪টি স্টেডিয়াম প্রস্তুতের প্রস্তাব দিয়েছে। মরক্কোর অর্থের কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত ক্যাসাব্ল্যাঙ্কা ও পর্যটন রাজধানী মারাকেশে দুটি করে স্টেডিয়াম ও বাকি শহরগুলোতে একটি করে স্টেডিয়াম প্রস্তুতের দাবি জানানো হয়েছে। টানগিয়েরসে সবচেয়ে বড় স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারণক্ষমতা ৯৩ হাজার।

এলালামি বলেছেন, মরক্কোর বিডের সবচেয়ে শক্তিশালী দিকটি হচ্ছে ‘‘টাইম জোন” অর্থাৎ জিমএমটি সুবিধা। সময়ের সুবিধার কারণে বিশ্বের বেশিরভাগ ফুটবল সমর্থক সঠিক সময়ে প্রিয় দলের খেলা উপভোগ করতে পারবে। এছাড়াও ৭০টি দেশের নাগরিকদের জন্য ভিসা ফ্রি প্রবেশের সুবিধাও প্রস্তাব করা হয়েছে। একটি স্টেডিয়াম থেকে আরেকটি স্টেডিয়ামের দূরত্বও বেশি নয়, যে কারণে দর্শকরা খুব সহজেই এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যেতে পারবে। মরক্কোর ৮৪ শতাংশ জনগণ ফুটবলের প্রতি দারুণ আগ্রহী। সরকারের দাবি ৯৭ শতাংশ জনগণ এই বিডে নিজের সমর্থনের কথা জানিয়েছে।

এর আগে ১৯৯৪, ১৯৯৮ ও ২০০৬ সালে মরক্কো বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের বিডে অংশ নিয়েছিল। যদিও প্রথমবারের মত ৪৮টি দেশের অংশগ্রহণের আয়োজিত ২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের জন্য যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকোর যৌথ বিডকেই সংশ্লিষ্টরা এগিয়ে রেখেছেন।

অমৃতবাজার/মাসুদ