ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

তামিমের ব্যাটে দাপুটে জয়ে শুভসূচনা টাইগারদের


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৬:০২ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০১৮, সোমবার | আপডেট: ০৭:২০ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০১৮, সোমবার
তামিমের ব্যাটে দাপুটে জয়ে শুভসূচনা টাইগারদের

ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৮ উইকেটে বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজে শুভসূচনা করেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের দেওয়া ১৭১ রানের লক্ষ্য ৮ উইকেট ও ২১.৩ ওভার হাতে রেখেই টপকে যায় টাইগাররা। টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে টাইগারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৪৯ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান তোলে জিম্বাবুয়ে।

১৭১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশকে ঝড়ো সূচনা এনে দেন তামিম ইকবাল ও এনামুল হক বিজয়। বিজয় ১৪ বলে ১৯ রান করে সিকান্দার রাজার শিকার হয়ে ফিরে গেলে সাকিব আল হাসানকে সঙ্গে নিয়ে সাবলীলভাবে পথ পাড়ি দিতে থাকেন তামিম। দলীয় ১০৮ রানের মাথায় সাকিবও রাজার শিকারে পরিণত হন। ৪৬ বলে ৩৭ রান করেন সাকিব।

এরপর তামিমের সঙ্গে যোগ দেন মি. ডিপেন্ডেবল মুশফিকুর রহিম। তৃতীয় উইকেট জুটিতে অবিচ্ছিন্ন ৬৩ রান তুলে জয় নিশ্চিত করেন তামিম-মুশফিক। ৯৩ বলে ৮৪ রান করেন তামিম। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল ৮টি চার ও ১টি ছয়ের মারে। অপরপ্রান্তে ২৩ বলে ১টি করে চার-ছয়ে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিক।

শেষ পর্যন্ত ২৮.৩ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের একমাত্র সফল বোলার সিকান্দার রাজা ৫৩ রান খরচায় নেন ২ উইকেট। 

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে এর আগে টস জিতে জিম্বাবুয়েকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। ব্যাট করতে নেমে সাকিব আল হাসানের প্রথম ওভারেই দুই উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় জিম্বাবুয়ে। রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফেরেন সলোমন মিরে ও ক্রেইগ আরভিন। দলীয় ২ রানে ২ উইকেট হারানো দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন মাসাকাদজা ও ব্রেন্ডন টেইলর।

তবে তাদের সেই লড়াই বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেননি টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। দলীয় ৩০ রানের মাথায় মাশরাফির বলে উইকেটের পিছনে ধরা পড়েন মাসাকাদজা (১৫)। দলীয় ৫১ রানের মাথায় আঘাত হানেন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। জিম্বাবুয়েকে আশা দেখাতে থাকা ব্রেন্ডন টেইলরকে সাজঘরের পথ দেখান মোস্তাফিজ। ৪৫ বলে ২৪ রান মুশফিকের গ্লাভসে ধরা পড়েন টেইলর।

এরপর দলীয় ৮১ রানের মাথায় ওয়ালার ফিরে গেলে জিম্বাবুয়ের বিপদ আরও ঘনীভূত হয়। তবে সিকান্দার রাজার অর্ধশতকে শেষ পর্যন্ত সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান তুলতে পারে দলটি। ৯৯ বলে ৫২ রান করেন রাজা। এছাড়া পিটার মুর করেন ৩৩ রান। ৪৮তম ওভারে পরপর দুই বলে পিটার মুর ও ছাতারাকে বোল্ড করে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা তৈরি করেন রুবেল হোসেন। তবে মুজারাবানি সেটা হতে দেননি।

১০ ওভারে ৪৩ রান খরচায় ৩ উইকেট তুলে নেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এছাড়া রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান নেন ২টি করে উইকেট।

বল হাতে ৩ উইকেট ও ব্যাট হাতে ৩৭ রানের অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সে ম্যাচসেরার পুরস্কার পান সাকিব আল হাসান। 

ত্রিদেশীয় সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আগামী ১৭ জানুয়ারি শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে জিম্বাবুয়ে।

অমৃতবাজার/মাসুদ