ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৭ | ৭ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

‘স্টোকসকে ছাড়া ইংল্যান্ড অ্যাশেজ জিততে পারবে না’


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৬ এএম, ১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
‘স্টোকসকে ছাড়া ইংল্যান্ড অ্যাশেজ জিততে পারবে না’

বেন স্টোকসকে ছাড়া ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ জয় অসম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ। একই সাথে তিনি মন্তব্য করেছেন, স্টোকস যদি অস্ট্রেলিয়ান হতেন তবে এই ধরনের কাজের জন্য সাথে সাথেই তাকে দল থেকে বাদ দেয়া হতো না।

গত মাসে ব্রাইটনে একটি নাইট ক্লাবের বাইরে এক অনাকাঙ্খিত ঘটনার জের ধরে ইংল্যান্ডের পুলিশ স্টোকসকে গ্রেফতার করে। সেই ঘটনার পরপরই দলের এই সহ-অধিনায়ককে অনির্দিষ্টকালের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বহিষ্কারের ঘোষণা দেয় ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। এর আগেই স্টোকস ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ দলে জায়গা পেয়েছিলেন। কিন্তু গত সপ্তাহে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, আগামী ২৮ অক্টোবর দলের সাথে স্টোকস অস্ট্রেলিয়ায় যাচ্ছেন না।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৫৭ টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে ৪১টিতে জয়ী হওয়া স্টিভ ওয়াহ বলেছেন, স্টোকসকে ছাড়া ইংল্যান্ডের শক্তি অনেকাংশেই কমে যাবে। সে যদি দলের সাথে না আসে তাহলে ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ জয় মোটেই সহজ হবে না।

যদিও এখনো স্টোকসের বিপক্ষে অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি। তার ঘটনাটি তদন্তনাধীন রয়েছে। এ ক্ষেত্রে এখনই অ্যাশেজ দল থেকে তাকে বাদ দেয়াটা মোটেই ভালো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি বলেই ওয়াহ মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া দলের কোনো খেলোয়াড় হলে এমন হতো না। একবার দলে নিয়ে তারপর তাকে বাদ দেয়া এখনকার দিনে মোটেই মানানসই নয়। এতে ক্রিকেটের ইমেজের ওপরও প্রভাব পড়ে। আমি মনে করি, ইংলিশ নির্বাচকরাও তাকে দলে নিতে মুখিয়ে আছে। সম্ভবত সে-ই দলের সেরা খেলোয়াড়। সে কারণেই স্টোকস যদি দলের সাথে না থাকে তবে সেটা সত্যিকার অর্থেই লজ্জাজনক হবে।’

আগামী ২৩ নভেম্বর থেকে ব্রিসবেনে পাঁচ ম্যাচে টেস্ট সিরিজ শুরু হবে। আর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে অ্যাশেজে স্টোকসের অনুপস্থিতি ইংল্যান্ড দলে দারুণ প্রভাব পড়বে। এর আগে তিনটি সফরের দুটিতেই ইংল্যান্ড ৫-০ ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিল। মিডল অর্ডার একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজেকে দলে প্রতিষ্ঠিত করার পাশাপাশি স্টোকস একজন ডান-হাতি ফাস্ট মিডিয়াম বোলারও। সে ক্ষেত্রে স্টোকসের অনুপস্থিতিতে স্টুয়াট ব্রড ও জিমি অ্যান্ডারসনের ওপর দারুণ চাপ পড়বে। পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে এই বয়সে ব্রড ও এ্যান্ডারসন দলের জন্য কতটা সহায়ক হবে তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন ওয়াহ। বাসস

অমৃতবাজার/রেজওয়ান

Loading...