ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভারতের নির্বাচনে ভোটে ডিজিটাল জালিয়াতির শিকার সবাই


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৩:০৫ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার
ভারতের নির্বাচনে ভোটে ডিজিটাল জালিয়াতির শিকার সবাই

ভারতের লোকসভা নির্বাচনকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়ছে। ফেসবুক বা টুইটারে ছড়ানো পোস্টগুলো বেশ ভাইরাল হচ্ছে। এইসব মিথ্যা খবর রটানো ভোটের পরিবেশকে অস্থির করার প্রয়াস বলে মনে করছেন অনেকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বোরকা পরা পুরুষের ছবি থেকে শুরু করে রাহুল, রণবীর ও দীপিকা এবং খ্যাতিমান সাংবাদিককে ঘিরেও ভুয়া খবর প্রচার করা হচ্ছে। এই ঘটনাগুলোই তুলে এনেছে আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা এএফপি।

বোরকা পরা এক পুরুষের ছবি ভাইরাল হয় ফেসবুকসহ টুইটারের একাধিক পোস্টে। হাজার হাজার বার শেয়ার হয়েছে। এ ছবি প্রকাশ করে দাবি করা হচ্ছে, এই লোক ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি’র একজন কর্মী।

তিনি বোরকা পরে মুসলিম নারী সেজে চলমান লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিতে গিয়ে ধরা পড়েন। কিন্তু এই দাবি পুরোপুরি মিথ্যা। কারণ, ছবিটি ২০১৫ সাল থেকে অনলাইনে ঘোরাফেরা করছে।

ছবিটা এ বছর এক ফেসবুক পোস্টে প্রকাশ পায় ১১ এপ্রিল। তখন থেকে শেয়ার হয়েছে ২০ হাজার বারেরও বেশি। এ বছর ভারতের লোকসভা নির্বাচন শুরুর দিনটিতেই প্রকাশ করা হয় ছবিটি। হিন্দি ভাষায় লেখা ছবির ক্যাপশনটি এমন- শাহারানপুরে বোরকা পরে মুসলিম নারী সেজে ভোট দিতে গিয়ে বিজেপি কর্মী হাতেনাতে ধরা। শাহারানপুর ডিস্ট্রিক্ট ভারতের উত্তর প্রদেশের একটি নির্বাচনী আসন। একই অভিযোগ নিয়ে টুইটারেও প্রকাশ করা হয় ছবিটি।

এএফপি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৫ সালের অক্টোবর থেকেই এ ছবিটি গুগলে ঘোরাফেরা করছে। ভারতের একটি সংবাদ ও বিনোদন সাইটে এ ছবি প্রকাশ পায় ২০১৫ সালের ১ অক্টোবর।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, লোকটি বোরকা পরে মন্দিরে গরুর মাংস ছুড়ে মারছিলেন। সেখানে তাকে রাষ্ট্রীয় সমাজসেবক সংঘের কর্মী হিসেবে উল্লেখ করা হয়। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, এই লোকটি বোরকা পরে আজমগড়ে একটি মন্দিরে গরুর মাংস ছুড়ে মারছিলেন।

ভারতের নামকরা সাংবাদিক স্বেতা সিং-ও বাদ যাননি। এক পোস্টে দেখানো হয়, তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদিকে সমর্থন জানিয়েছেন। কিন্তু এটা মিথ্যা পোস্ট। স্বেতার ভেরিফাইড টুইটার অ্যাকাউন্টে গিয়ে এমন কোনো পোস্ট মেলেনি।

আরেক ভিডিও পোস্টে দেখা যায় বিরোধী দলীয় নেতা রাহুল গান্ধী বলছেন যে তিনি ভোটে জিতলে চাঁদে কৃষিজমির ব্যবস্থা করবেন। এই ভিডিও দেখা হয়েছে হাজার হাজার বার। সেখানে দেখা যায়, এক নির্বাচনী ক্যাম্পেইনে তিনি কৃষকদের ফসল ফলাতে চাঁদে জমি দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

আসলে ভিডিওটি ২০১৭ সালের এক ক্যাম্পেইনের। এটাই এডিট করা হয়েছে। আসল ভিডিওতে রাহুল কৃষকদের দেয়া মোদির প্রতিশ্রুতিকে অবাস্তবিক বলে তুলে ধরেন। অন্য একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, মহাসড়কজুড়ে মানুষের ঢল।

একে বিজেপির সমর্থনে বের করা র‍্যালি হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। সেখানে সবাই সাদা, হলুদ আর কমলা রংয়ের পোশাক পরেছেন। আসলে ওটা ২০১৫ সালে থাইল্যান্ডের বৌদ্ধদের এক অনুষ্ঠানের ছবি।

বাদ যাননি রণবীর এবং দীপিকা জুটিও। ছবিতে দেখানো হয়, তারা দুজন বিজেপির উত্তরীয় পরে দলের পক্ষে নিজেদের অবস্থানের জানান দিচ্ছেন। আসলে ২০১৮ সালের ছবি ওটা। ছবিটাকে এডিট করে সেখাননে বিজেপির উত্তরীয় বসানো হয়েছে। তাদের পরনে সাদা রংয়ের শিফনের উত্তরীয় ছিল।

অমৃতবাজার/পিকে