ঢাকা, বুধবার, ২৮ জুন ২০১৭ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

নিজেও কাঁদলেন, সবাইকেও কাঁদালেন সেই পুলিশ কনস্টেবল



প্রকাশিত: ০৯:০০ পিএম, ১২ ডিসেম্বর ২০১৬, সোমবার
নিজেও কাঁদলেন, সবাইকেও কাঁদালেন সেই পুলিশ কনস্টেবল

ছুটিতে গিয়েছিলেন বাড়িতে। কিন্তু হঠাৎ খোঁজ পেলেন বাড়ির পাশে একটি বাস দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। ঘরে থাকতে পারলেন না তিনি। আশপাশের লোকজনকে নিয়ে ছুটে গেলেন ঘটনাস্থলে। শুধু তাই নয়, দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি থেকে একটি মেয়ে শিশুকে উদ্ধার করে কোলে করে কাঁদতে কাঁদতে হাসপাতালের উদ্দেশে দৌঁড়াতে থাকলেন তিনি।

এ সময় তার কান্না দেখে নিজেদের চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি উপস্থিত জনতারা।

উপরে যার কথা বলা হচ্ছিলো তিনি আর কেউ না। নাম শের আলী। চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত রয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি তার কান্নারত ছবিটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এরপরই তিনি চলে আসেন আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে।

জানা যায়, বাসটির ব্যাগ রাখার স্থানে শিশুটি আটকে ছিল। সেটি ফাঁক করে মেয়েটিকে উদ্ধার করার পর সে তাকে ‘আব্বা’ বলে পানি খেতে চেয়েছিলো। আর উদ্ধারকৃত ওই মেয়েটির বয়স তার মেয়ের বয়সী হওয়ায় তিনি আর কান্না ধরে রাখতে পারেন নি। তাই কাঁদতে কাঁদতে দৌঁড়েছিলেন হাসপাতালের উদ্দেশে।

রোববার দুপুরে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের রামু উপজেলার রশিদ নগর ইউনিয়নের পানিরছড়া এলাকায় ওই দুর্ঘটনায় বাস উল্টে চারজন নিহত হন, আহত হন অন্তত ২৩ জন।

অমৃতবাজার/আরএস

Loading...