ঢাকা, সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০ | ২৩ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভারতীয় নেটিজেনদের দাঁতভাঙ্গা জবাব


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:৫২ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার | আপডেট: ০৪:৫৭ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার
ভারতীয় নেটিজেনদের দাঁতভাঙ্গা জবাব ছবি- স্যালুট বাংলাদেশ

ভারতের ক্ষুদ্র এক রাজ্যের একটি পেজের ফ্যানরা বিনা উস্কানিতে বাংলাদেশকে নিয়ে বাজে পোস্ট দেয়। তাদের মতে আমরা কাংলু, মিসকিন। ভারতের ত্রাণ, দান, দক্ষিণায় আমরা বেঁচে আছি। তাদের মতে বাংলাদেশ এতই গরিব রাষ্ট্র যে, বাংলাদেশ তাদের তৈরি কথিত হেভিওয়েট অস্ত্র যেমন- ফ্রিগেট, মিসাইল কেনার সামর্থ্য রাখে না। এক রেজিমেন্টে মিসাইল আর দুটো কোলকাতা ক্লাস ডেস্ট্রয়ারের দাম সব মিলিয়ে ১.৫ বিলিয়ন ডলার হবে।

এবার আসুন আমাদের কিছু মেগা প্রজেক্টের নাম আর তার ডলার ভ্যালুয়েশন দেখি-

 ১) পদ্মা সেতু - ৪ বিলিয়ন ডলার 

 ২) রূপপুরের পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র - ১৪ বিলিয়ন ডলার 

 ৩) ঢাকা-চট্রগ্রাম হাইস্পিড রেল - ১৫ বিলিয়ন ডলার 

 ৪) ২য় পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র - ১৪  বিলিয়ন ডলার

 ৫) ঢাকা মেট্রোরেল প্রকল্প - ২ বিলিয়ন ডলার 

 ৬) পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্প - ২ বিলিয়ন ডলার

 ৭) এল এন জি টার্মিনাল - ২ বিলিয়ন ডলার 

 ৮) চট্টগ্রাম - কক্সবাজার  রেল সংযোগ প্রকল্প - ৩ বিলিয়ন ডলার

 ৯) ঢাকা সার্কুলার মেট্রোরেল (পাতাল রেল) - ৫ বিলিয়ন ডলার

 ১০) মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প - ২ বিলিয়ন ডলার 

 ১১) রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র - ২ বিলিয়ন ডলার 

 ১২)  পায়রা সমুদ্রবন্দর - ৩ বিলিয়ন ডলার 

 ১৩) কর্ণফুলী ট্যানেল- ১ বিলিয়ন ডলার 

 ১৪) পদ্মা রেল লিঙ্ক - ৫ বিলিয়ন ডলার 

সবমিলিয়ে ৬০+ বিলিয়ন ডলারের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ আমাদের এই ছোট `গরিব` দেশে চলমান। আমাদের এই `গরিব` দেশের এক্সপোর্ট ৪৫ বিলিয়ন ডলার। রেমিট্যান্স ১৭ বিলিয়ন ডলার। মানে আমাদের এক বছরের ফরেন কারেন্সির ইনফ্লো ৬২ বিলিয়ন ডলার। 

এবার ফরেন রিজার্ভে আসি। আমাদের ফরেন রিজার্ভ হচ্ছে ৩৪ বিলিয়ন ডলার। আমদানি হচ্ছে ৫২ বিলিয়ন ডলার। মানে এই `ফকির` দেশটা  বছরে ১১৪ বিলিয়ন ডলার নাড়াচাড়া করে। মানে হাতে নিয়ে খেলে! 

এবার এর মধ্যে থেকে কি ২ বিলিয়ন ডলার খরচ করা কি খুব কষ্টের? তার উপর রিজার্ভ তো আছেই। রিজার্ভ দিয়ে কেউ আসলে অস্ত্র কেনে না। এটা দিয়ে একটা দেশের অর্থনৈতিক স্ট্যাবিলিটি নির্দেশ করে। আমরা ততটুকু অস্ত্রই কিনব, যতটুকু আমাদের দরকার। 

আমার জানামতে পশ্চিমবঙ্গের ফরেন কারেন্সির ফ্লো বলতে বড় জোর ৫-৬ বিলিয়ন ডলার হবে। জ্বি! ঠিকই শুনতে পাচ্ছেন। ৫-৬ বিলিয়ন ডলার। তাহলে এইবার বল- ফকির কারা? 

সবশেষে একটা কথাই বলতে চাই- বাংলাদেশ - ভারত উভয়ই উন্নয়নশীল দেশ। সবারই বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে। কেউ কাউকে তুচ্ছ না করে প্রবৃদ্ধির দিকে মন দিতে হবে। 

- ফেসবুক থেকে সংগৃহীত এবং পরিবর্ধিত ও পরিমার্জিত।

অমৃতবাজার/এমআর