ঢাকা, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯ | ২ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রশিদকে ব্যঙ্গ করে টুইট, প্রতিবাদে সরব ক্রিকেটাররা


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:৫৪ পিএম, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার
রশিদকে ব্যঙ্গ করে টুইট, প্রতিবাদে সরব ক্রিকেটাররা

তীব্র সমালোচনা আর ব্যঙ্গ, বিদ্রুপে ডুবে আছেন আফগানিস্তান দলের স্পিনার রশিদ খান। 

গত মঙ্গলবার অন্যরকম এক সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বল হাতে বেধড়ক পিটুনি খেয়ে অনেকটাই বিধ্বস্ত টি-২০ ক্রিকেটে বিশ্বসেরা এই স্পিনার।

ইয়ন মরগানের ব্যাটে উড়ে গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা ব্যঙ্গাত্মক মন্তব্য সইতে হচ্ছে তাকে।

বর্তমানে আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে তিন নম্বর ওয়ানডে বোলার থেকে এমন পারফরম্যান্স আশাই করতে পারছেন না ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। 

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট সমর্থকরা তাকে নিয়ে ট্রল করছেন, মিম বানাচ্ছেন। দিচ্ছেন নানা আঙ্গিকে স্যাটায়ার পোস্ট।

সে সব ট্রলে বারবারই সামনে আসছে তার ৫৬ বলে ১১০ রান দেয়ার বিষয়টি।

সাধারণ মানুষের সেসব ট্রলে গা ভাসিয়েছে আইসল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

ওই ম্যাচের পর আফগান লেগ স্পিনার তারকাকে নিয়ে বিতর্কিত টুইট করে তারা।

নিজেদের অফিসিয়াল টুইটার পেজে আইসল্যান্ড ক্রিকেট রশিদ খানের ছবি পোস্ট করে লেখে, ‘আমরা এইমাত্র শুনলাম রশিদ খান আফগানিস্তানের হয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরি করেছেন। ৫৬ বলে ১১০। বিশ্বকাপে কোনো বোলারের করা সব থেকে বেশি রান বা এইরকন কিছু। দারুণ ব্যাট করেছ ইয়ং ম্যান’৷

আইসল্যান্ডের সেই ব্যঙ্গাত্মক টুইটের পর রশিদের পাশে দাঁড়িয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড, জোফ্রা আর্চার, ইশ সোধির মতো তারকারা। টুইটের নিন্দা করেছেন তারা।

টুইটারে স্টুয়ার্ট ব্রড লিখেছেন, ‘রশিদ বিশ্বমানের বোলার এবং ওর খেলা দেখতে অসাধারণ লাগে। আমাদের খেলায় প্রত্যেকের খারাপ দিন যায়।’

জোফ্রা আর্চার আইসল্যান্ড ক্রিকেটের টুইটটিকে ‘ভয়ানক টুইট’ আখ্যা দিয়ে লিখেছেন, একটি ক্রিকেট সংস্থা থেকে এমন টুইট অগ্রহণযোগ্য।

ব্রিটিশ ক্রিকেটার লুক রাইট লেখেন, ‘এটা জঘন্য টুইট। ব্যঙ্গ করার একটি সীমাবদ্ধতা থাকে। কাউকে ব্যঙ্গ না করে তার সম্পর্কে শ্রদ্ধাশীল হওয়া উচিত,অ্যাসোসিয়েট ক্রিকেটের জন্য অনেক কিছু করেছে রশিদ।’

ইশ সোধি লুক রাইটের মতামতকে সমর্থন করে লেখেন, ‘আমিও একমত। রশিদ বিশ্বের লেগ স্পিনারদের জন্য অন্য একটি বেঞ্চ মার্ক তৈরি করেছে।’ প্রসঙ্গত চলতি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত নজর কাড়তে ব্যর্থ হয়েছেন রশিদ খান। বলতে গেলে অফফর্মেই আছেন তিনি। আর এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে খারাপ দিন গেল রশিদের।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেদিনের ম্যাচে ইয়ন মর্গ্যানদের আগ্রাসনের সামনে অসহায় রশিদ ৯ ওভারে খরচ করেন ১১০ রান। পরিবর্তে একটিও উইকেটের দেখাও পাননি তিনি।

বিশ্বকাপের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত এটিই সবচেয়ে খারাপ বোলিং পারফরম্যান্স।

অমৃতবাজার/পিকে