ঢাকা, শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯ | ২ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কোহলিকে মুকুট পরিয়ে বিতর্কে আইসিসি


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৫:৩০ পিএম, ০৬ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার
কোহলিকে মুকুট পরিয়ে বিতর্কে আইসিসি

বিশ্বকাপের এবারের আসরে ভারতের প্রথম ম্যাচ শুরুর আগে বিরাট কোহলিকে মুকুট পরিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা (আইসিসি)। বুধবার আইসিসি-র তরফে কোহালির একটি ছবি টুইট করা হয়।

গ্রেট ব্রিটেনের এক শিল্পীর আঁকা ওই ছবিতে দেখা যাচ্ছে, রাজার বেশে মুকুট পরে সিংহাসনে বসে রয়েছেন ভারত অধিনায়ক। এক হাতে ব্যাট, অন্য হাতে বল।

কোহালির পিছনে একটি বোর্ড টাঙানো। তাতে লেখা, ‘ক্রিকেট বিশ্বকাপজয়ী। ভারত ১৯৮৩, ২০১১।’ এর পরে কিছুটা জায়গা ফাঁকা। যেখানে আরও একটি সাল লেখার জায়গা রয়েছে।

কোহালির এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়াতেই কেউ কেউ প্রশ্ন তুলতে থাকেন, বিশ্বকাপ শুরু হতে না হতেই কিভাবে কোহালিকে সিংহাসনে বসিয়ে দিল স্বয়ং আইসিসি?

ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ভন ব্যঙ্গ করে টুইট করেছেন, ‘‘নিরপেক্ষতার চরম নিদর্শন!!!’’ এই নিয়ে তিনি আবার কোহালি-সমর্থকদের ক্ষোভের মুখে পড়েছেন। রাতে ভনের টুইটের জবাবে আইসিসি তিনটি তথ্য দিয়ে পাল্টা টুইট করে।

যেখানে দেখানো হয়েছে, কোহালি ওয়ান ডে এবং টেস্টের এক নম্বর ব্যাটসম্যান ও আইসিসি-র তিনটি পুরস্কারজয়ী। এটা পরিষ্কার, আইসিসি বলতে চেয়েছে, এর পরে কোহালি সিংহাসনে বসবেন না তো কে বসবেন?

কোহালি ভক্তরা এই টুইটে খুশি হলেও অনেকে পাল্টা প্রশ্ন তুলেছেন। যেমন, ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা এবং বিশ্বকাপের আয়োজক সংস্থা হিসেবে কী করে কোহালির মাথায় মুকুট পরিয়ে দিতে পারে আইসিসি?

অভিযোগ, আইসিসি তো পরিষ্কার ইঙ্গিত করছে, বিশ্বকাপটা তারা কার হাতে দেখতে চায়। পাশাপাশি এও বলা হচ্ছে, দশটি দল যেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে, সেখানে একটি দলের অধিনায়ককে কেন এত প্রাধান্য দেওয়া হল?

এক ক্রিকেট ভক্ত যেমন টুইট করেছেন, ‘‘আইসিসি এমন করছে, যেন ওরা ভারতীয় ক্রিকেটের ভক্ত।’’ অন্য আর এক জনের টুইট, ‘‘আইসিসি-কে যেন কিনে নিয়েছে বিসিসিআই।’’

আইসিসিকে পরামর্শও দিয়েছেন কেউ, কেউ। তাদের বক্তব্য, ‘‘আরও পরিণত বোধের পরিচয় দাও আইসিসি। ভারত ছাড়া আরও নয়টি দেশ এই বিশ্বকাপে খেলছে।’’

অমৃতবাজার/পিকে