ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জঙ্গি হামলা নিয়ে এই পাক-তরুণীদের পোস্টে তোলপাড় অনলাইন দুনিয়া


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৩:৪২ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, বৃহস্পতিবার
জঙ্গি হামলা নিয়ে এই পাক-তরুণীদের পোস্টে তোলপাড় অনলাইন দুনিয়া

জঙ্গি সংগঠন জইশের হানায় পুলওয়ামায় নিহত হয়েছেন ৪৯ জন ভারতীয় সেনা৷ ঘটনার পাঁচদিন পর মুখ খুলেও, এই হামলার বিষয়ে সামান্যতম দুঃখ প্রকাশ করেননি পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ 

বরং দায় ঝেড়ে ফেলার সব রকমের চেষ্টা করেছেন তিনি৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রী ইমরানের দেখানো পথে হাঁটল না সেদেশের যুব সমাজ৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় পুলওয়ামা হামলার তীব্র নিন্দা করে, কার্যত পাক প্রধানমন্ত্রীর অবস্থানে বিপরীতে দাড়ালেন তারা৷

গত বৃহস্পতিবারের এই ভয়ংকর জঙ্গি হানার বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে রাজপথে নেমে প্রতিবাদ করেছে আপামর দেশবাসী৷ প্রতিশোধের আগুনে ফুটছে গোটা দেশ৷ সীমান্ত পেড়িয়ে যার রেশ পৌঁছে গিয়েছে পাকিস্তানেও৷ 

পুলওয়ামায় হওয়া জঙ্গি হানার নিন্দা করতে শুরু করেছে সেদেশের যুব সমাজও৷ শেয়র মিরজা নামের এক পাক মহিলা প্ল্যাকার্ড হাতে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন৷ যাতে লেখা, ‘আমি একজন পাকিস্তানি এবং আমি পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার নিন্দা করছি৷’ 

হ্যাজ ট্যাগ হিসাবে তিনি ব্যবহার করেন #AntiHateChallenge #NoToWar৷ এরপর আবার তিনি ফেসবুকে লেখেন, ‘দেশাত্মবোধের জন্য আমি মানবিকতার ব্যবসা করতে পারব না৷’ নিজের ব্যক্তিগত মতামত ‘Aman Ki Asha’ নামের একটি ফেসবুক গ্রুপেও পোস্ট করেন তিনি৷ 

এছাড়া সেনা ও যুদ্ধ সস্পর্কে ভারতীয় কবি শাহির লুধিয়ানভির লেখা একটি কবিতাও পোস্ট করেন শেয়র৷ তার এই পোস্টের ব্যাপক প্রভাব পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে তাঁর এই পোস্ট৷ 

তাকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে পুলওয়ামার ঘটনার নিন্দায় সরব হন আরও অনেক পাক নাগরিক৷ পুলওয়ামায় ভয়াবহ জঙ্গি হানার ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে৷ বিশ্বের অনেক দেশই এই হামলার নিন্দা করেছে৷ সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে৷ 

ঘটনার পাঁচদিন পর মঙ্গলবার মুখ খোলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ এবং স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই সন্ত্রাসবাদে মদতের কথা ওড়ান তিনি৷ উলটে দাবি করলেন, দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ প্রমাণ দিতে পারলে, তাদের কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করবে পাকিস্তান৷ এমনকী,উলটে ভারতের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারিও দেন পাক প্রধানমন্ত্রী৷ 

জানান, ভারত হামলা করলে চুপ করে বসে থাকবে না পাকিস্তান৷ তাদের কাছে আর কোনও বিকল্প পথ খোলা থাকবে না৷ তারাও প্রত্যাঘাত করবে৷ তিনি আরও বলেন, ‘‘একটা স্থিতিশীল অবস্থার দিকে দু’দেশের সম্পর্ককে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে পাকিস্তান৷ আমার নিজেরাই বারবার নাশকতার শিকার হচ্ছি৷ তবে কেন আমরা এই কাজ করব?’’

অমৃতবাজার/পিকে