ঢাকা, রোববার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘রমজান মাসকে রামাদান’ এ কেমন বিচার!


মাসুম পারভেজ

প্রকাশিত: ০৩:৩৭ পিএম, ২০ মে ২০১৮, রোববার
‘রমজান মাসকে রামাদান’ এ কেমন বিচার!

দিনতো বদলাইয়া গ্যাছে অনেক আগেই, সেই কবেই ভাইজান হইয়া গ্যাছে #ব্রো, বন্ধু হইয়া গ্যাছে #ডুড, আর এখন কথা বলায় ডিপ্যান্ড করে #মুড।

খুব কাছের মানুষরে আমরা এখন শখ কইরা #নিগাহ্ কইয়া সম্বোধন করি। আম্মারে কই #মম (এইডা মাঝে মাঝে আমিও কই) বাপরে সবায় আগে কইতো #ড্যাড, এখন কয় #বব। এইগুলা আসলে পুরান প্যাচাল। তাইলে নুতন প্যাচালডা কি ? নুতন প্যাচাল হইলোগিয়া...

ইদানিং নুতন ট্র্যাডিশন শুরু হইছে শহরে, এখন আমরা পবিত্র মাহে #রমজান বলা বাদ দিয়া দিছি। তার পরিবর্তে #রামাদান বলা শুরু করছি। নামাজ কে বলতেছি #সালাহ্। বুঝলাম এইগুলা শুনতে মধুর। কিন্তু এইগুলা বলাকি ফরজ ?? না সুন্নত ?? ( নামাজ বা রমজান এই শব্দগুলা দেশ অনুযায়ী নিজেদের মতো করে বলা যায় কিনা ? বা বললে পাপ হবে কিনা ??) আমার দেশের নিজের ভাষায় এই শব্দ গুলা যেভাবে প্রচলিত ছিলো সে ভাবে বললে বা চালু থাকলে সমস্যাটা কোথায় ???? এইটা কিন্তু জানার জন্য প্রশ্ন করছি, কারো জানা থাকলে উত্তর দিবেন।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাইচা থাকতে যখন রবীন্দ্রনাথ টগর বানানখান মাইনা নিছে তখন এই জাতি (সাব কন্টিনেন্ট ধইরা বলতেছি) আস্তে আস্তে সবই মাইনা নিবে। কোনদিন হয়তো দেখমু আমাদের বাংলাভাষা মিউজিয়ামে গেলে ইনহাউস গাইড(ডোসেন্ট) গুলা ইংরেজি ভাষায় বুঝাইতেছে যে রফিক, শফিক, জব্বার #ব্রো রা ভাষার জন্য কিভাবে প্রান দিয়েছিলো।

ঈ(দীর্ঘ ই) ৎ(খণ্ড ত) ঌ(লি) ঋ(রি) ঞ(ইয়) ঔ(ওউ) হ্ম(ণ য়ে ম) ব্যাবহারের প্রয়োজনীয়তা হারাইছে মানলাম, তাই বইলা #রমজান রে #রামাদান? এ ক্যামন বিচার?

অমৃতবাজার/মিঠু