ঢাকা, সোমবার, ২৪ জুলাই ২০১৭ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

নগ্নতা মানে প্রকৃতিতে ফিরে যাওয়া: প্যারিস জ্যাকসন


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:৪৩ পিএম, ১৬ মে ২০১৭, মঙ্গলবার
নগ্নতা মানে প্রকৃতিতে ফিরে যাওয়া: প্যারিস জ্যাকসন

মার্কিন পপসঙ্গীতশিল্পী মাইকেল জ্যাকসনের একমাত্র মেয়ে প্যারিস জ্যাকসন। ‘নগ্নতা আমাদের প্রকৃতিগত, নগ্নতাই মানুষকে মানুষ করে তোলে। আর শরীর সুন্দর, একে ঢেকে রাখতে হবে কেন?’- নিজের সামাজিক যোগাযোগেরমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এমন মন্তব্য করেছেন মার্কিন পপসঙ্গীতশিল্পী মাইকেল জ্যাকসনের একমাত্র মেয়ে প্যারিস জ্যাকসন।

প্যারিস একজন খ্যাতনামা মডেলও। ইনস্টাগ্রামে বর্তমানে তাঁর এক কোটি ছয় লাখ অনুসারী রয়েছে।

গত সপ্তাহের ওই পোস্টের সঙ্গে প্যারিস একটি সুইমিংপুলের কাছে পোষা কুকুরের পাশে আধশোয়া একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন। যে ছবিটি ছিল অর্ধ অনাবৃত। পরে সমালোচনার মুখে ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবিটি সরিয়ে নেন প্যারিস।

এরপর প্যারিস আরেকটি অর্ধ অনাবৃত সাদাকালো ছবি পোস্ট করেন। যেখানে তাঁকে অর্ধ অনাবৃত অবস্থায় সোফায় বসে সিগারেট টানতে দেখা যায়। পাশেই বসেছিল তার পোষা কুকুরটি।

প্যারিস ইনস্টাগ্রামে লেখেন, ‘নগ্নতা মানে প্রকৃতিতে ফিরে যাওয়া। এই আন্দোলনের সূচনা হয়ে গেছে। ’

নগ্নতা একজন মানুষকে পৃথিবী ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সঙ্গে যুক্ত করে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। প্যারিস জানান, সব নগ্নতার মধ্যে তিনি যৌনতা খুঁজে পান না।ইনস্টাগ্রামে প্যারিস লিখেন,‘নারীবাদই একজন নারীর আত্মপ্রকাশের সর্বোত্তম পথ।’

প্যারিস লিখেন, ‘নারীবাদ আপনাকে আপন পথে নিজেকে প্রকাশ করার সুযোগ করে দেবে। তবে ভাবার বিষয় এই যে নগ্নতা আপনাকে আরো বেশি রক্ষণশীলতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে না তো।’ইন্সটাগ্রামে প্যারিস বলেন, ‘মানুষের শরীর সুন্দর। আপনার কী খুঁত আছে, সেটা বিবেচ্য নয়। প্রত্যেকেই নিজের মতো করে সুন্দর। শরীরকে ঢেকে রাখতে হবে কেন!’

ইনস্টাগ্রামে ডিলিট করা ছবি প্রসঙ্গে প্যারিস বলেন, ‘আমি জানি আমার এই ছবিটি হয়তো অনেককে কষ্ট দিয়েছে। তাই আমি ছবিটি ডিলিট করেছি। তবে আমি এর জন্য ক্ষমা চাইতে আগ্রহী নই। আমি যা তাই। এতে লজ্জার কিছু দেখছি না তো। আমি আমার বিশ্বাস আমার মধ্যেই রাখতে চাই।’এ ছাড়া প্যারিসের কাজ যাঁরা পছন্দ করেন না তাঁদের ভবিষ্যতে তাঁকে অনুসরণ না করার জন্য উৎসাহ দেন।

মাইকেল জ্যাকসন যখন মারা যান, তখন প্যারিসের বয়স ছিল মাত্র ১১ বছর। সম্প্রতি প্যারিস রোলিং স্টোন ম্যাগাজিনকে জানান, তাঁর বাবাকে খুন করা হয়েছে বলে বিশ্বাস করেন তিনি। এ ছাড়া সম্পূর্ণ অপরিচিত একজন কর্তৃক যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার কথাও জানিয়েছিলেন ওই ম্যাগাজিনকে। আরো জানিয়েছিলেন অবসাদগ্রস্ততা এবং ২০০৩ সালের আত্মহত্যা চেষ্টার কথাও।

অমৃতবাজার/সাইফুল

Loading...