ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভাঁজ করা ফাইভজি স্মার্টফোন আনলো স্যামসাং


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:৪৫ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার | আপডেট: ০৪:৪৬ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার
ভাঁজ করা ফাইভজি স্মার্টফোন আনলো স্যামসাং

চীনা কম্পানিগুলোর সস্তা ফোন আর অ্যাপলের দৌরাত্ম্যে স্যামসাংয়ের স্মার্টফোন রাজত্ব যখন হুমকির মুখে তখন উদ্ভাবনীয় সাফল্যে আবারও গর্জে ওঠার জানান দিল এ রাজ্যের সিংহ। বাজারে আসছে স্যামসাংয়ের ফাইভজি সক্ষম ভাঁজ করা স্মার্টফোন।

গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকোতে প্রায় দুই হাজার ডলার দামের গ্যালাক্সি এস১০ সিরিজের নতুন এ স্মার্টফোনের উদ্বোধন করা হয়। জানানো হয়, আগামী ২৬ এপ্রিল থেকে গ্রাহকরা নতুন এ ফোন কিনতে পারবেন। নতুন এ ডিভাইস দেখতে বর্তমান ফোনগুলোর মতো হলেও এটিকে বইয়ের মতো খোলা যাবে। যার আকার হবে ৭.৩ ইঞ্চি বা ১৮.৫ সেন্টিমিটার। এটি ভাঁজ করা অবস্থায়ও ৪ দশমিক ৬ ইঞ্চি ডিসপ্লের ফোন হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। এ ফোনে একসঙ্গে তিনটি অ্যাপ চালানো যাবে। অ্যাপ কন্টিনিউয়িটি নামে ফিচার আছে, যাতে ডিভাইসটি এক মোড থেকে অন্য মোডে চালানো যাবে।

ফোনটিতে ক্যামেরা রয়েছে ছয়টি। এর তিনটি পেছনে দুটি ভেতরে ও একটি সামনে। ফোনটি যেভাবেই ধরা হোক না কেন সেভাবে ছবি তোলা যাবে। এতে ৭ ন্যানোমিটার অক্টাকোর প্রসেসর, ১২ জিবি র‌্যাম, ৫১২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ থাকছে। অ্যানড্রয়েড ৯.০ পাই ওএস চালিত। নতুন এ স্মার্টফোনে তার ছাড়াই চার্জ দেওয়া যাবে।

গ্যালাক্সি এস১০ সিরিজের আরো তিন স্মার্টফোন উদ্বোধন করেছে কম্পানিটি। সেগুলো হচ্ছে—এস১০ প্লাস, দাম পড়বে ১ হাজার ডলার, এস১০, দাম পড়বে ৯০০ ডলার এবং ছোট এস১০ই দাম হবে ৭৫০ ডলার থেকে। সব স্মার্টফোনেরই নেটওয়ার্ক হবে আগেরগুলোর চেয়ে ১০ গুণ দ্রুতগতির। আগামী ২০২০ সালের আগে ফাইভজি সক্ষম স্মার্টফোন বাজারে আনবে না অ্যাপল। ফলে এ সময়ে বাজার দাপিয়ে বেড়াবে স্যামসাংয়ের নতুন ফোন। আগামী সপ্তাহে শুরু হতে যাচ্ছে মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস। আশা করা হচ্ছে, প্রতিদ্বন্দ্বী কম্পানিগুলোও ফাইভজি মডেল স্মার্টফোনের ঘোষণা দেবে ওই প্রদর্শনীতে।

বাজারসংশ্লিষ্টরা বলছেন, স্যামসাংয়ের বিক্রি যখন হ্রাস পাচ্ছিল তখন অ্যাপল ও চীনা প্রতিদ্বন্দ্বীতে আবারও ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করল দক্ষিণ কোরীয় কম্পানিটি।

অনুষ্ঠানে স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের প্রধান নির্বাহী ডিজে কোহ বলেন, ‘যারা এত দিন বলে আসছিল স্মার্টফোন বাজারে সব উদ্ভাবনী শেষ, এটি সেসব সমালোচকদের জন্য উত্তর। আমরা প্রমাণ করেছি তাদের বক্তব্য ভুল।’ বর্তমান বাজারে প্রায় এক-পঞ্চমাংশ স্মার্টফোন বিক্রি করে শীর্ষে রয়েছে স্যামসাং। তবে হুয়াওয়ে, শিয়াওমিসহ চীনা কম্পানিগুলো এবং অ্যাপলের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কম্পানিটির তেজ যেন কমে আসছিল।

বিশ্লেষকরা বলছেন, নতুন এ স্মার্টফোনে দৃষ্টিনন্দন বড় পর্দার পাশাপাশি ফাইভজি সক্ষমতা দিয়ে প্রতিযোগিতায় দুই দিক থেকেই এগিয়ে গেল স্যামসাং।

এ ছাড়া ফ্ল্যাগশিপ গ্যালাক্সি-এস সিরিজে ফোরজি সক্ষম ভাঁজ করা ফোনও আনার ঘোষণা দিয়েছে। মুর ইনসাইটস অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজির প্রতিষ্ঠাতা প্যাট্রিক মুরহ্যাড বলেন, নতুন এ ভাঁজ করা ডিভাইসের মাধ্যমে স্যামসাং শীর্ষে থেকে যাওয়ার পথ তৈরি হলো। গ্রাহকরাও গত পাঁচ বছরে যে ধরনের স্মার্টফোন ব্যবহার করে এসেছে একই আকারে বড় স্ক্রিনের স্মার্টফোন পেয়ে কিনতে আগ্রহী হবে। রয়টার্স।

অমৃতবাজার/আরবি