ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯ | ১১ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনে ডিজিটাল প্রচারণায় অগ্রাধিকার


রেজওয়ান বাপ্পী

প্রকাশিত: ১০:১৪ পিএম, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | আপডেট: ১১:১৫ পিএম, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার
নির্বাচনে ডিজিটাল প্রচারণায় অগ্রাধিকার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আসন্ন ৩০ ডিসেম্বর। ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে সকল প্রকার প্রচারণা। সারাদেশের ন্যায় এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মত দেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা যশোরেও গুরুত্ব পেয়েছে ডিজিটাল মাধ্যম। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো।

দেখা গেছে, ফেসবুকে ফ্যানপেজ খুলে প্রচারণা, টুইটারে ছবি পোস্ট, ইউটিউবে ডকুমেন্টারি ভিডিও আপলোড, গুগলের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রচার করে এবং ই-মেইলের মাধ্যমেও চলছে প্রচারণা। এ সকল প্রচারণায় প্রার্থীরা তাদের নাম, প্রতীক এবং ব্যক্তিগত ভালো দিকগুলো তুলে ধরছেন। প্রার্থীরা ভোটারদের মোবাইলে এসএমএস এবং ভয়েস কলের মাধ্যমেও করছেন ভোট প্রার্থনা।

গত কয়েক বছরে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। আর এর প্রভাব পড়েছে দেশের জাতীয় নির্বাচনে। দেশের অধিকাংশ ভোটার বিশেষ করে তরুণ ভোটারদের হাতে স্মার্টফোন থাকায় এ বিষয়ে বেশি জোর দিচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলো। এক্ষেত্রে বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানি এবং বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলো সেবা দিচ্ছে।

জানা যায়, যশোর-৩ (সদর) আসনের নৌকার প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ নিজের ফেজবুক আইডি এবং ফেসবুকপেজে নির্বাচনকালীন গণসংযোগ, পথসভা ও জনসভার ছবি নিয়মিত প্রচার করছেন। সংসদ সদস্য থাকাকালীন গত পাঁচবছরে এই আসনে সরকারের উন্নয়নগুলো ডকুমেন্টনির ভিডিও তৈরি করে ফেসবুক ও ইউটিউবে ছড়িয়ে দিচ্ছেন।

ডিজিটাল প্রচারণায় পিছিয়ে নেই এ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী অনিন্দ ইসলাম অমিত। ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় এবং গুগলের মাধ্যমে বিভিন্ন ভার্চুয়াল সাইটে নিজের নাম, ছবি ও প্রতীক বিজ্ঞাপন আকারে প্রচার করছেন।

এদিকে, যশোর-১ (শার্শা) আসনে ধানের শীষের প্রার্থীর কোনো প্রকার প্রচারণা দেখা না গেলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বেশ গরম করে রেখেছেন নৌকার প্রার্থী বর্তমান সাংসদ আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন। নিজের ফেসবুক আইডি দিয়ে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন, প্রতিদিনের গণসংযোগ এবং পথসভার ছবি প্রচার করছেন। নৌকা মার্কার সমর্থক ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের আইডিতেও এই সাংসদের ছবি ও প্রতীকের প্রচারণামূলক প্যানা শোভা পাচ্ছে।

অপরদিকে, যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনে নৌকার প্রার্থী মেজর জেনারেল (অব.) নাসির উদ্দিন ভোটারদের মোবাইলে এসএমএস এবং ভয়েস কলের মাধ্যমে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এগুলোর মাধ্যমে দিনের কার্যাবলী (জনসভা, পথসভা, গণসংযোগ) এলাকাবাসীর কাছে আগাম বার্তা হিসেবে পৌঁছে দিচ্ছেন।

একইভাবে যশোর-৪ (অভয়নগর-বাঘারপাড়া) আসনের রনজিত কুমার রায়, যশোর-৫ (মণিরামপুর) স্বপন কুমার ভট্টাচার্য্য এবং যশোর-৬ (কেশবপুর) আসনের নৌকার প্রার্থী ইসমাত আরা সাদেক ডিজিটাল মাধ্যমে সক্রিয় রয়েছেন। ভার্চুয়াল এ সকল জগতে তাদের প্রার্থিতা, মার্কা এবং শেখ হাসিনার উন্নয়ন সম্পর্কে মানুষকে অবগত করার চেষ্টা করছেন।

অমৃতবাজার/রেজওয়ান/ইকরামুল