ঢাকা, বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ | ১১ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চাঁদ দেখা যায়নি, বৃহস্পতিবার ঈদ


অমৃতবাজার রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ১১:০৮ পিএম, ০৪ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার | আপডেট: ১১:৪০ পিএম, ০৪ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার
চাঁদ দেখা যায়নি, বৃহস্পতিবার ঈদ

 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে কোথাও হিজরি শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। তাই আগামী বৃহস্পতিবার ৬ জুন সারা দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। তারা সারা দেশে চাঁদ দেখার তথ্য পর্যালোচনা করে ঈদের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন।

চাঁদ দেখার তথ্য পর্যালোচনার বৈঠক শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, আগামীকাল বুধবার সারাদেশে রমজান পালিত হবে। এর পরের দিন বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদ-উল ফিতর পালিত হবে।

তিনি আরও জানান, আমরা সারাদেশ থেকে প্রাপ্ত তথ্য পর্যালোচনা করে দেখেছি, সারাদেশের কোথাও চাঁদ দেখা যায়নি। তাই আল্লাহ ও রাসুলের বিধান অনুযায়ী কাল বুধবার রোজা পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

একুশে টেলিভিশনের সকল দর্শক ও পাঠকদের জানাই- ঈদের শুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক। এদিকে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এদিকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন।

জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে ওই নামাজে ইমামতি করবেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান। বিকল্প ইমাম হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মিরপুর জামেয়া আরাবিয়ার শায়খুল হাদিস মাওলানা সৈয়দ ওয়াহীদুযযামান।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষ বুধবার সকালে ঈদের প্রধান জামাতে অংশ নেবেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, এবার বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে এবারও পাঁচটি জামাত হবে। প্রথম জামাতটি হবে সকাল সকাল ৭টায়। পর্যায়ক্রমে সকাল ৮টা, ৯টা, ১০টা এবং ১০টা ৪৫ মিনিটে পরের জামাতগুলো হবে।

নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় জায়নামাজ বা ছাতা ছাড়া অন্য কিছু বহন না করতে নগরবাসীকে পরামর্শ দিয়েছে ঢাকার মহানগর পুলিশ।

জাতীয় ঈদগাহ ছাড়াও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ব্যবস্থাপনায় ৩০২টি স্থানে এবার ঈদের জামাত হবে বলে জানিয়েছেন জনসংযোগ কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায়।

আর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৫৭টি ওয়ার্ডে ২২৮টি জামাতের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএনসিসির প্রধান সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার।

নয়াপল্টন জামে মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত হবে। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে সকাল ৮টা এবং ৯টায় দুটি জামাত হবে।

স্যার সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের প্রধান ফটক সংলগ্ন মাঠে সকাল ৮টায় এবং ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হলের লনে সকাল ৮টায় আরও দুটি জামাত হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

অমৃতবাজার/এএস