ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৬ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর মাতৃভাষা উদযাপন


নাঈম হাসান। পোর্তো, পর্তুগাল থেকে

প্রকাশিত: ০৩:২৫ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার
বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর মাতৃভাষা উদযাপন ছবি-অমৃতবাজার ।

পর্তুগালের প্রাচীন রাজধানী পোর্তোয় নানা আয়োজনে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করেছে বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তো।

বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তো, পর্তুগিজ স্পাসো টি অ্যাসোসিয়েশন ও পর্তুগিজ সরকারের সহযোগিতায় যৌথভাবে অনুষ্ঠিত হয় এবারের একুশের আয়োজন।

একুশের রাত ৮টায় পোর্তো শহরে নির্মিত স্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনের রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকী। এরপর বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর নেতারা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ ছাড়াও পোর্তো শহরের বেশ কয়েকজন রাজনৈতিক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

একুশে উদযাপন অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে পোর্তো শহরের বিখ্যাত এতেনিও কমার্শিয়াল দ্য পোর্তোর অডিটোরিয়ামে একুশের বিশেষ আলোচনা ও নৈশ্যভোজ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ ও পর্তুগালের জাতীয় সংগীত পরিবেশিত হয়।

আয়োজক সহযোগী প্রতিষ্ঠান স্পাসো টি`র সভাপতি জর্জ অলিভেইরা স্বাগত বক্তব্য দেন। শুভেচ্ছা বক্তব্যে রাখেন বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর সভাপতি শাহ আলম কাজল, বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম ও প্রদান উপদেষ্টা মোশাররফ হোসাইন বাংলা ভাষার ইতিহাস ও আন্দোলনের পটভূমি নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন।

ভাষা শহীদদের গভীরভাবে স্মরণের মধ্য দিয়ে বক্তব্যে বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনের রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকী বাংলা ভাষায় পর্তুগিজ ভাষার সংশ্লিষ্টতা নিয়ে আলোচনা করেন। পর্তুগিজ-বাংলাদেশ সম্পর্কের বিভিন্ন দিক নিয়েও আলোচনা করেন তিনি। পর্তুগিজ ভাষায় কিছুটা বক্তব্য প্রদান করেন রাষ্ট্রদূত। পর্তুগিজ ভাষায় বক্তব্য প্রদান করায় রাষ্ট্রদূতকে পরবর্তীতে বক্তব্যে ধন্যবাদ জানান পোর্তো সিটি কাউন্সিল ড. ফার্নান্দো পাউলো।

সমাপনী বক্তব্যে উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আলোচনা পর্ব শেষ করেন বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর সভাপতি শাহ আলম কাজল।

মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে পর্তুগালের ৮ জন বিশেষ নাগরিককে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে এদিন।

বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তো এবং পর্তুগিজ স্পাসো টি`র সহযোগিতায় আন্তঃকালচারাল ও মানবাধিকার সম্মাননা (একুশে পদক) ২০২০ প্রদান করা হয়। পর্তুগালের রাষ্ট্রপতি মার্সেলো রেবেলো দ্য সওজা কে সম্মাননা প্রদান করা হয় এছাড়াও আলাদা বিভাগে সাংবাদিক, মানবাধিকার কর্মী, রিফিউজি সংস্থায় কর্মরতরা সহ মোট ৮ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়।

পর্তুগিজ ও ব্রাজিলিয়ান শিল্পীদের অংশগ্রহণে বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পর্ব পরিবেশিত হয়। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক পর্তুগিজ নাগরিক এবারের আয়োজনে অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানের শেষে বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তোর ১২ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রদূত মো: রুহুল আলম সিদ্দিকী কেক কেটে এই বর্ষপূর্তি উদযাপন করেন। শেষে সমবেত কন্ঠে জন্মদিনের গানের মাধ্যমে উপস্থিত সবাই বাংলাদেশ কমিউনিটি অব পোর্তো নেতৃবৃন্দকে শুভেচ্ছা জানান।