ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণে গ্রীসে দিনব্যাপী লোক সঙ্গীত


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৫:২৬ পিএম, ০৮ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার
প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণে গ্রীসে দিনব্যাপী লোক সঙ্গীত

প্রবাসী বাংলাদেশিদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে গ্রিসে লোক সঙ্গীত উৎসব-২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে পশ্চিম আখাইয়া, মানোলাদার লাপা প্রাইমারি স্কুল অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ দূতাবাস, প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনোদনের লক্ষ্যে দিনব্যাপী এই লোক সঙ্গীত উৎসবের আয়োজন করে।

এসময় লাপা প্রাইমেরি স্কুল প্রাঙ্গণ বাংলাদেশি প্রবাসী সঙ্গীতপ্রেমিদের দ্বারা পরিপূর্ণ হয়ে উঠে।


গ্রীসে বাংলা সংস্কৃতিকে ছড়িয়ে দেবার উদ্দেশ্যে দূতাবাসের এই আয়োজনে সাড়া দিয়ে প্রবাসীরা গ্রীক বন্ধুদের সাথে নিয়ে আসেন এবং লাপা প্রাইমারি স্কুল অডিটোরিয়াম প্রায় চারশত বাংলাদেশি এবং গ্রীক নাগরিকদের এক মিলন মেলায় পরিণত হয়।


দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম) ড. সৈয়দা ফারহানা নূর চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম আখাইয়ার ভাইস মেয়র মি. ওরলোফ ও স্থানীয় মিউনিসিপালিটি বোর্ডের সদস্য মি. তাপিনোস, লাপা প্রাইমেরি স্কুলের পরিচালক মি. পোমনিস এবং লাপার সভাপতি মি. লাগোস।

এ সময় বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রীসের সিনিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট, সাধারণ সম্পাদক, গ্রীস আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ গ্রীসে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ব্যবসায়ী এবং জেলা ও বিভাগভিত্তিক আঞ্চলিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। প্রবাসী বাংলাদেশি পরিবার, নারী-পুরুষ, ছাত্র-ছাত্রী, সর্বস্তরের বাংলাদেশি এবং দূতাবাসের সকল সদস্যসহ সর্বস্তরের মানুষ এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন বলেন, লাপা, মানোলাদায় লোক সঙ্গীত উৎসব-২০১৯ বাংলা সংস্কৃতি ও বিদেশে বাংলাদেশকে পরিচিত করানোর এক মাইল ফলক হিসেবে কাজ করবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, অন্যরাও এই কার্যক্রমে এগিয়ে আসবে এবং বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি ছড়িয়ে পড়বে সমগ্র গ্রীসে।

তিনি আরও বলেন, এ ধরনের অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে গ্রীস ও বাংলাদেশের মধ্যে জনগণ পর্যায়ে আন্তঃ যোগাযোগ সংহত হবে যা দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে দৃঢ়তর করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন বলেন, মানোলাদা এবং লাপা এলাকায় কৃষি খামারে কর্মরত হাজার হাজার প্রবাসী বাংলাদেশীদের অক্লান্ত শ্রমের বিনিময়ে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। তিনি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার প্রচেষ্টায় অবদান রাখার আহবান জানান।

রাষ্ট্রদূত ও আমন্ত্রিত অতিথিরা অংশগ্রহণকারী শিল্পীদের মাঝে শুভেচ্ছা পুরস্কার বিতরণ করেন। প্রবাসী বাংলাদেশিরা তাদের মনোভাব প্রকাশ করে বলেন, এই ধরনের অনুষ্ঠান প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য বয়ে আনে আনন্দ, বন্ধন, সৌহার্দ্য আর সম্প্রীতি এবং এ অনুষ্ঠানটি লাপা, মানোলাদায় প্রবাসীদের মধ্যে বিপুল উদ্দীপনার সঞ্চার করেছে।

অমৃতবাজার/ কেএসএস