ঢাকা, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯ | ২ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে জীবনযাপন করতে হিমশিম খাচ্ছে মধ্যবিত্ত পরিবার


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:৩০ পিএম, ১৫ জুন ২০১৯, শনিবার | আপডেট: ০৪:৩১ পিএম, ১৫ জুন ২০১৯, শনিবার
যুক্তরাষ্ট্রে জীবনযাপন করতে হিমশিম খাচ্ছে মধ্যবিত্ত পরিবার

বেকারত্বের হার ২০০০ সালের পর সর্বনিম্ন থাকলেও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের ক্রয়ক্ষমতা দাঁড়িয়েছে নুন আনতে পান্তা ফুরানোর পর্যায়ে। ফলে অধিকাংশ মধ্যবিত্ত মার্কিন নাগরিক জীবনযাপন করতে হিমশিম খাচ্ছে। বিশেষ করে ঘর ভাড়া পরিশোধ ও খাবার জোগাড় করতে বেগ পেতে হচ্ছে তাদের।

হিসাব বলছে, একান্ন মিলিয়ন বা ৫ কোটিরও বেশি মার্কিন পরিবার তাদের মাসিক খরচ কুলাতে পারছে না। শিশু লালন-পালন, চিকিৎসা, পরিবহন খরচ ও সেলফোন রাখতে তারা রীতিমত দুশ্চিন্তার মধ্যে পড়েছেন। 

ইউনাইটেড ওয়ে-এর এক জরিপের বরাত দিয়ে সিএনএন জানিয়েছে, ১৬.১ মিলিয়ন বা দেড় কোটিরও বেশি পরিবার এখন দারিদ্রসীমার মধ্যে আটকা পড়েছে। আর ৩৪.৭ মিলিয়ন বা প্রায় সাড়ে ৩ কোটি পরিবার সংকটে পড়ে আছে। এ ধরনের পরিবার আধুনিক অর্থনীতির জেরে টিকে থাকতে মৌলিক চাহিদার অনেকটাই পূরণ করতে পারছে না। 

জরিপে দেখা যায়, অর্থনৈতিক সূচকগুলো ইতিবাচক দেখালেও আর্থিকভাবে পরিবারগুলোর সংগ্রাম এখনও একটি বড় সমস্যা। জরিপ পরিচালক স্টেফানি হুপস বলেন, ক্যালিফোর্নিয়া, নিউ মেক্সিকো ও হাওয়াইয়ের ৪৯ শতাংশ পরিবার কঠিন সংগ্রাম করছে। নর্থ ডাকোটায় এ হার সর্বনিম্ন ৩২ শতাংশ। 

এসব পরিবারের সদস্যরা শিশু পরিচর্যা কর্মী, গৃহপরিচারিকা, অফিস সহকারি বা স্টোর ক্লার্ক হিসেবে কাজ করছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ৬৬ শতাংশ কাজের পারিশ্রমিক হচ্ছে ঘণ্টায় ২০ ডলার। ২০১৬ সালের হিসাবে চার সদস্যের একটি পরিবারের বছরে খরচ পড়ে ৮৫ হাজার ডলার। 

সেক্ষেত্রে ঘণ্টায় ৪২.৪৬ ডলার না পেলে এ ব্যয় সংকুলান সম্ভব নয়। খোদ ওয়াশিংটনে ১৪ শতাংশ কাজে পারিশ্রমিক মেলে ঘণ্টায় ৪০ ডলার। সব মিলিয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে মধ্যবিত্তরা।

অমৃতবাজার/পিকে