ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

গ্রীসে বাংলাদেশ দূতাবাসে আনন্দ ও উদ্দীপনার সঙ্গে বর্ষবরণ


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:৩৩ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮, রোববার
গ্রীসে বাংলাদেশ দূতাবাসে আনন্দ ও উদ্দীপনার সঙ্গে বর্ষবরণ

গ্রীসের এথেন্সে প্রবাসী বাংলাদেশিদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে বাংলাদেশ দূতাবাস প্রাঙ্গণে ব্যাপক আনন্দ ও উদ্দীপনার সঙ্গে বাংলা বর্ষবরণ করা হয়েছে। বাংলা বর্ষবরণের লক্ষ্যে দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বাংলাদেশি খাবার উৎসবের সঙ্গে ‘বৈশাখী মেলা’র আয়োজন করা হয়। এ বছর গ্রীসে বাংলা বর্ষবরণের মূল আকর্ষণ ছিল ‘এক বাংলাদেশি এক গ্রীক’ কর্মসূচি। এই কর্মসূচির মাধ্যমে দূতাবাসের পক্ষ থেকে প্রবাসীদের অনুরোধ করা হয় প্রত্যেকে যেন একজন করে গ্রীক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে আসে।

গ্রীসে বাংলা সংস্কৃতিকে ছড়িয়ে দেবার উদ্দেশ্যে দূতাবাসের এই আয়োজনে সাড়া দিয়ে প্রবাসীরা গ্রীকদের সঙ্গে নিয়ে আসেন এবং পহেলা বৈশাখের সকালে শত শত বাংলাদেশির এবং গ্রীক নাগরিকদের এক মিলন মেলায় পরিণত হয় দূতাবাস প্রাঙ্গণ। এথেন্স এবং নিকটবর্তী শহরসমূহ থেকে আগত শত শত বাংলাদেশি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন বর্ষবরণ মেলার উদ্বোধন করেন।

গ্রীস বাংলা বৈশাখী বায়োস্কোপ’। বাংলাদেশি পরিবার, নারী-পুরুষ, ছাত্র-ছাত্রী, সর্বস্তরের বাংলাদেশি এবং দূতাবাসের সদস্যগণ মেলাতে অংশগ্রহণ করেন। এরপর আয়োজন করা হয় ‘মঙ্গল শোভাযাত্রা’। বিপুল উৎসাহে প্রবাসী বাংলাদেশিরা বাদ্যযন্ত্র সহকারে এ শোভাযাত্রায় অংশ নেন।

বর্ষবরণের দিনে দূতাবাস চত্বরে বৈশাখী মেলার পাশাপাশি আয়োজন করা হয় ‘উন্নয়ন মেলা’। গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন মেলায় আগত গ্রীক এবং বাংলাদেশি দর্শনার্থীদেরকে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সর্ম্পকে অবহিত করেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভিশন-২০২১ এবং ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ উন্নত দেশ হবার পথে এগিয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্রদূত প্রবাসীদের এই উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সক্রিয় ভাবে সামিল হতে আহ্বান জানান।

অমৃতবাজার/ইকরামুল