ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৭ | ৭ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

রেমিট্যান্স বৃদ্ধিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের সাফল্য


আরিফুর রহমান আরিফ

প্রকাশিত: ১০:৫১ এএম, ০৯ অক্টোবর ২০১৭, সোমবার | আপডেট: ১২:৩৯ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০১৭, সোমবার
রেমিট্যান্স বৃদ্ধিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের সাফল্য

প্রবাসীদের নিয়ে বৈধ পথে রেমিট্যান্স বৃদ্ধির এক অসাধারণ সাফল্যের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাস। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠানোর ওপর জোর দেয়ার নীতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে গত বছর গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাস এই উদ্যোগ গ্রহণ করে।

 প্রবাসীদের বৈধ পধে অর্থ প্রেরণে উৎসাহিত করার জন্য দূতাবাস আনুষ্ঠানিকভাবে রেমিট্যান্স প্রেরণকারী প্রবাসী বাংলাদেশিদের পুরস্কৃত করে। দূতাবাসের উদ্যোগে এবং প্রবাসীদের অংশগ্রহণে তৈরি হয় রেমিট্যান্স সচেতনেতামূলক নাটিকা।

"http://www.amritabazar.com/media/PhotoGallery/2016July/b220171008234801.jpg/
 
এই ব্যাপক কর্মসূচির আওতায় রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন প্রতি মাসের  একটি দিনকে রেমিট্যান্স প্রেরণ দিবস হিসেবে চালু করে। ওই দিনটিতে দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারি এবং প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে বাংলাদেশি মানি রেমিটিং এজেন্সির মাধ্যমে বাংলাদেশে অর্থ প্রেরণ শুরু করেন। এ বছর স্বাধীনতা দিবসের মাস মার্চে শুরু হওয়া এই দিবসে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এই দিবসে যোগ দেন।
 
বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১৫-১৬ সালে রেমিট্যান্স প্রবাহ তালিকায় গ্রিসের স্থান ছিল ২৬। গত প্রায় এক বছরে রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিনের উদ্যোগে বাংলাদেশ দূতাবাস ও প্রবাসীদের যৌথ কর্মতৎপরতায় বর্তমানে এই তালিকায় গ্রিসের স্থান ২০-এ উঠে এসেছে।
 
এ ব্যাপারে রাষ্ট্রদূত জসীম উদ্দিন বলেন যে, দূতাবাস এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরা একযোগে কাজ করলে অনেক বড় বড় সাফল্য অর্জন করা সম্ভব।
 
রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধির অসামান্য সাফল্যের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন যে, গ্রিসের বর্তমান অর্থনৈতিক সংকট, প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংখ্যা হ্রাস, কর্মসংস্থানের সীমিত সুযোগ ইত্যাদি সীমাবদ্ধতার মধ্যে রেমিট্যান্স প্রবাহ তালিকায় গ্রিসের বাংলাদেশিদের ২০তম স্থানে উঠে আসা সম্মিলিত প্রচেষ্টার সুফল। ভবিষ্যতেও এই সম্মিলিত প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

http://www.amritabazar.com/media/PhotoGallery/2016July/b120171008234755.jpg

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প-২০২১ ও রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নে প্রতিটি প্রবাসী বাংলাদেশির সক্রিয় ভূমিকা পালনের সুযোগ রয়েছে। তিনি রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধির সাফল্যের জন্য দূতাবাসের উদ্যোগে সাড়া দেয়ার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

অমৃতবাজার/আরিফ/সাইফুল

Loading...