ঢাকা, শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মন্ত্রী হলে এমন কথা বলতেন না মেনন: ওবায়দুল কাদের


অমৃতবাজার রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ০৫:২৪ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রোববার
মন্ত্রী হলে এমন কথা বলতেন না মেনন: ওবায়দুল কাদের

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি বলে সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন যে বক্তব্য দিয়েছেন তার সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক যোগাযোগ এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘মন্ত্রী হলে কি তিনি (মেনন) এ কথা বলতেন?’

আজ রোববার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

রাখদে খান মেননের এ বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এতদিন পরে কেন? এই সময় কেন? নির্বাচন তো অনেকদিন আগে হয়েছে। মন্ত্রী হলে কি তিনি এ কথা বলতেন।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রশ্নে তিনি বলেন, বিষয়টি পুরোপুরি আইনি হলেও বিএনপি এটা নিয়ে রাজনীতি করছে, সরকারের ওপর দায় চাপাচ্ছে। কিন্তু তার মুক্তি নিয়ে আন্দোলনের কথা মুখে বললেও এখনও বিএনপি কোনো আন্দোলন করে দেখাতে পারেনি। আন্দোলন করতে সরকার তাদের বাধা দিচ্ছেনা বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

যুবলীগ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের সভাপতি যাকে চাইবেন তাকে মিটিং এ ডাকতে পারেন, সন্ধ্যার মিটিং এ ওমর ফারুক চৌধুরী থাকবেন কি না সেটা দলের সভাপতির সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে, আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনগুলোর সম্মেলনের মধ্য দিয়ে এসব সংগঠনের নেতৃত্বে বিতর্কিত যারা রয়েছেন তারা অবশ্যই বাদ পড়বেন। যুবলীগের বয়সসীমা নিয়ে গঠনতন্ত্রে সংশোধন আসবে কীনা সে বিষয়েও আলোচনা হতে পারে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ‘গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমিও নির্বাচিত হয়েছি। তারপরও আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি, ওই নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারেনি। এমনকি পরবর্তীতে উপজেলা এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও ভোট দিতে পারেনি দেশের মানুষ।’

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘আপনি-আমি মিলে যে ভোটের জন্য লড়াই করেছি, আজিজ কমিশনকে ঘেরাও করেছি, আমরা এককোটি ১০ লাখ ভুয়া ভোটার তালিকা ছিঁড়ে ফেলে নির্বাচন বর্জন করেছি মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরও। আজকে কেন ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ এবং জাতীয় নির্বাচনে মানুষ ভোট দিতে পারছে না?’

১৪ দলের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির শীর্ষ নেতা আরও বলেন, ‘উন্নয়ন মানে গণতন্ত্র হরণ নয়। উন্নয়ন মানে ভিন্ন মতের সংকোচন নয়। উন্নয়ন মানে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা হরণ নয়। উন্নয়ন মানে গণতন্ত্রের স্পেস কমিয়ে দেওয়া নয়।’

মেনন বলেন, ‘ক্যাসিনো মালিকদের ধরা হচ্ছে, দুর্নীতিবাজদের ধরা হচ্ছে, কিন্তু দুর্নীতির আসল জায়গা নির্বিঘ্ন আছে। সেই দুর্নীতিবাজদের বিচার কবে হবে, তাদের সাজা কবে হবে, তাদের সম্পদ কবে বাজেয়াপ্ত হবে?’

অমৃতবাজার/এএস