ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯ | ৭ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

`তোর বাপের দেখা পেতে চাস, তাহলে ভোটকেন্দ্রে যা`


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:১৪ পিএম, ২১ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার
`তোর বাপের দেখা পেতে চাস, তাহলে ভোটকেন্দ্রে যা`

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পাটি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, সকাল সকাল ভোটকেন্দ্রে যাবেন। না হলে ভুতুড়ে লোক এসে ভোট দিয়ে যেতে পারে। মরা বাপেরও দেখা মেলে ভোটকেন্দ্রে। গ্রামের এক লোক বলছে, তোর বাপের দেখা পেতে চাস, তাহলে ভোটকেন্দ্রে যা। গিয়ে দেখবে ভোটকেন্দ্রে তোর মরা বাপের নামেও ভোট দেয়া হয়ে গেছে।

শুক্রবার গৌরীপুরের শ্যামগঞ্জের পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এখন প্রহসনের নতুন কায়দা করা হয়েছে। জুয়েল আইচের ম্যাজিক। হাত দিয়ে দেখায়। বলে হাতে কিছু আছে; নাই। কিন্তু আসলে আছে। এমনভাবে কারচুপি করবে, বাইর থেকে টের পাবেন না। এটাকে বলে ঐন্দ্রজালিক কারচুপি, ঐন্দ্রজালিক প্রহসন।

ময়মনসিংহ-৩ গৌরীপুর আসনে বাম গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থী কমরেড হারুন আল বারী’র কাস্তে প্রতীকে ভোট চেয়ে শ্যামগঞ্জে এ পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, দু’জোটেই রাজাকার-স্বৈরাচার। ওদের কাছে আগে নীতি না। যদি নীতি থাকত তাহলে আজ নৌকা, কাল ধান, আজ যে ধান কালকে সে নৌকা হয়ে যায় কীভাবে! এমপি নির্বাচন এখন ব্যবসায় পরিণত হয়েছে। ওরা ১ কোটি টাকা দিয়ে মনোনয়ন কেনে, ৫ কোটি টাকা ব্যয় করে এমপি হয়। নির্বাচনের পরেই খবরের কাগজে দেখা যায় শত কোটি টাকার মালিক!

পথসভা শেষে তিনি শ্যামগঞ্জ বাজারে কাস্তে প্রতীকের লিফলেট বিতরণ করেন এবং কাস্তে প্রতীকে ভোট চান। সিপিবি গৌরীপুর শাখার সভাপতি কমরেড লুৎফর রহমান সভাপতিত্ব করেন।

বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ সিপিবির সাধারণ সম্পাদক কমরেড শেখ বাহার মজুমদার, সদস্য মনিরা বেগম অনু, ময়মনসিংহ কৃষক সমিতির সভাপতি আবুল হাসেম, সিপিবি শ্যামগঞ্জ শাখার সভাপতি ডা. শহীদুল্লাহ, সাবেক সভাপতি কমরেড মকবুল হোসেন, সাবেক সম্পাদক কমরেড লিয়াকত হোসেন, সিধলার সম্পাদক কমরেড আবুল হাসেম, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আশজাদুল বোরহান তাসিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান শুভ, গৌরীপুরের সভাপতি আলী আশরাফ আবির, উদীচী গৌরীপুর শাখার সভাপতি পলাশ মাজহার, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান প্রমুখ।

অমৃতবাজার/ইকরামুল