ঢাকা, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলার ঘটনায় গবিসাসের নিন্দা


গণ বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ০২:৩০ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৭, রোববার
সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলার ঘটনায় গবিসাসের নিন্দা

রাজশাহীতে তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (গবিসাস)।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি হাসান আদিব, এসএ টিভির রাজশাহী প্রতিনিধি জিয়াউল গণি সেলিম এবং এসএ টিভির ক্যামেরা পার্সন আবু সাঈদের ওপর থেকে অবিলম্বে মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এই মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান গবিসাস নেতৃবৃন্দ।

রোববার গবিসাস কার্যালয়ে গবিসাস সভাপতি এস এম আহমেদ মনি এবং সাধারণ সম্পাদক তাজবিদুল ইসলামের যৌথ বিবৃতিতে এই নিন্দা প্রকাশ করা হয়।

বিবৃতিতে তারা বলেন, সাংবাদিকদের নামে এ ধরনের মামলা দায়ের গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধের শামিল। বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার চর্চা ও তথ্যের অবাধ প্রবাহকে বাধাগ্রস্ত করতেই এ মামলা করা হয়েছে। এ ধরনের মামলা প্রত্যাহার করে সাংবাদিকদের হয়রানি না করার জন্য আমরা দাবি জানাচ্ছি।’

অবিলম্বে মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এই মামলা প্রত্যাহার করে ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত সকলের শাস্তির দাবী জানানো হয় বিবৃতিতে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) বিকালে রাজশাহী মহানগর মুখ্য হাকিম আদালতে তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেন রাবি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রবিউল আউয়াল মিল্টন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মুশফিক তাহমিদ তন্ময়।

মামলায় আসামিরা হলেন- রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি দৈনিক যুগান্তরের রাবি প্রতিনিধি (রাবিসাস) হাসান আদিব, এসএ টিভির রাজশাহী ব্যুরো প্রধান জিয়াউল গনি সেলিম ও ক্যামেরা পারসন আবু সাঈদ এবং  উল্লেখ্য, গত ৯ নভেম্বর এসএ টিভিতে `ইয়াবা চক্রে জড়িত রাবি ও রুয়েটের শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারী’ এবং ১০ নভেম্বর দৈনিক যুগান্তরে `রাবি ও রুয়েটে ইয়াবা ব্যবসায় ৪৪ শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারী’ শিরোনামে সংবাদ প্রচারিত ও প্রকাশিত হয়।

অমৃতবাজার/সাগর/রেজওয়ান

Loading...