ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৬ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ক্ষমা চেয়েও নিস্তার নেই সেই লেখিকার


মাহমুদুর রহমান

প্রকাশিত: ০৬:৪৭ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
ক্ষমা চেয়েও নিস্তার নেই সেই লেখিকার ছবি- বিভিন্ন আইডি থেকে ফারজানাকে পাঠানো ম্যাসেজের স্ক্রিনশট

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জাহান রিমা নামের এক লেখিকার লেখা নকল করার অভিযোগ ফারজানা হোসেন নামের একজন লেখিকার বই প্রকাশ ও বিক্রি বন্ধ হয়ে গেছে। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি জাহান রিমা তার ফেসবুক একাউন্টে ফারজানা হোসেনের ছবি ও প্রমাণস্বরূপ তার ও ফারজানার ফেসবুক পোস্টের কিছু স্কিনশট তুলে ধরেন। এর পর পেনড্রাইভ নামের ওই বইটি প্রকাশনা ও বিক্রি বন্ধ করে কলম প্রকাশনী।

এঘটনার পর বেশকিছু অনলাইন নিউজ পোর্টালে সংবাদ বের হয়। ফেসবুকে নেটিজেনরা দিতে থাকেন পোস্ট। তবে সেসব পোস্টে লেখা কপি করার প্রসঙ্গ এড়িয়ে ফারজানার চরিত্র নিয়ে নোংরা অপপ্রচার হচ্ছে বলে দাবি ফারজানার। তিনি তার ফেসবুক একাউন্টে পাঠানো কিছু ম্যাসেজের স্ক্রিনশট অমৃতবাজার পত্রিকাকে দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নামে-বেনামে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে ফারজানা হোসেনকে অশ্রাব্য গালাগালি করা হচ্ছে। এমনকি একটি ফেইক আইডি থেকে তার স্বামীর ফেসবুকে ম্যাসেজ করে ফারজানার সঙ্গে কলম প্রকাশনীর প্রকাশকের পরকীয়া আছে বলে অসংখ্য ম্যাসেজ করা হচ্ছে।

তবে এব্যাপারে লেখিকা জাহান রিমার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ব্যক্তিগত আক্রমণকে আমি সমর্থন করি না।

গত বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ফারজানা হোসেন তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে জাহান রিমার কাছে ক্ষমা চেয়ে লিখেন- `ভুল-ত্রুটি ও ভালো-মন্দের মিশেলে মানুষের জীবন। আমরা কেউই ভুল-ত্রুটির ঊর্ধ্বে নয়। তবে আমি যা করেছি সেটি পাপ। ২০১৯ সালে পেনড্রাইভ প্রকাশিত হয়। পেনড্রাইভ উপন্যাসটি সম্পূর্ণ রাজনীতি ও অপরাধ জগৎ নিয়ে লেখা। তবে আপুর স্ট্যাটাসের কয়েকটা লেখা আমি পেনড্রাইভ এ যুক্ত করি। লেখাগুলো মার্ক করে নিচে দিয়ে দিলাম। আমার একবছর আগের এই ভুলের জন্য আমি অনুতপ্ত এবং জাহান রিমা আপুর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমি জানি জাহান রিমা আপু একজন উদারপ্রকৃতির মানুষ। তিনি আমাকে যে শাস্তি দিবেন আমি মাথা পেতে নিবো।`

পুরো বিষয়টি নিয়ে লেখিকা ফারজানার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাকে ফেসবুকে যে ধরণের ম্যাসেজ দেয়া হচ্ছে, শুধু সন্তানদের দিকে তাকিয়ে এখনো আত্মহত্যা করিনি।

ফেসবুকে উত্যক্তকারীদের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন- আইনজীবির সঙ্গে ইতোমধ্যে কথা হয়েছে। সবগুলো স্ক্রিনশট জড়ো করে শিঘ্রী পরবর্তী পদক্ষেপ নেব।

অমৃতবাজার/এমআর