ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’ নিয়ে খুদে পাঠকদের হুল্লোড়!


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০১:২৪ পিএম, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার
‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’ নিয়ে খুদে পাঠকদের হুল্লোড়!

উম্মে জান্নাত জারা। দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে উইলস লিটল ফাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজে। শিশু চত্বরে অবস্থিত কালান্তর স্টল থেকে কিনল ‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’। একটা নয় পাঁচটা! একটা নিজের। বাকিগুলো বন্ধুদের জন্য।

মিরপুরের এক কিন্ডারগার্টেনে পড়ে নেহাল। বাবা সাংবাদিক। সেও তার বন্ধুদের দেবে বলে নিল বেশ কয়েক কপি। এভাবেই প্রতিদিন শিশুরা কিনে নিয়ে যাচ্ছে তাদের জন্য মজার গল্পের বই ‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’।

এ সম্পর্কে প্রকাশক মোজাম্মেল হক নিয়োগী বলেন, ‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’ বইটি মূলত ৫ থেকে ১২ বছর বয়সী শিশুদের জন্য লিখেছেন শিশুসাহিত্যিক অদ্বৈত মারুত। আলো বৃষ্টি ভালোবাসে। খুবই চটপটে। সে বৃষ্টি ছুঁয়ে দেখতে চায়। কিন্তু যেটা হয় যে, এখনকার ছেলেমেয়েদের আমরা বৃষ্টির পানি ছুঁয়ে দেখতেও দিই না অসুখ হতে পারে- এই ভয়ে। অথচ এই আমরাই শৈশবে বৃষ্টিতে কতই না ভিজে একাকার হয়েছি! আলো মুখে মুখে ছড়া বানায়। বাবার ভালো লাগে। তিনি মেয়ের ভেতরে ভবিষ্যতের আলোকদ্যুতি খুঁজে পান। নানাভাবে মেয়েকে উৎসাহী করেন, যেটা আমাদের প্রত্যেক বাবা-মায়ের উচিত। গল্পের সঙ্গে পৃষ্ঠায় পৃষ্ঠায় মজার মজার ছবি এঁকেছেন শিল্পী বিপ্লব চক্রবর্ত্তী। গল্প ও অলংকরণ উভয় মিলে বইটি শিশুদের দারুণ মনোযোগ করেছে’।

লেখক অদ্বৈত মারুত বলেন, ‘শিশুদের ভবিষ্যৎ গড়ে দিতে বাবা-মায়ের ভূমিকা অনস্বীকার্য। এটা করা যাবে না, ওটা করা যাবে না, এটা ধরা বারণ, ওটা ছুঁলে এই হবে, ওই হবে- এভাবে শিশুর বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা উচিত নয়। ওকে ওর মতো বড় হতে দেওয়ার পরিবেশ তৈরি করে দেওয়া প্রত্যেক বাবা-মায়ের কতর্ব্য বলে মনে করি। এ দৃষ্টিকোণ থেকেই ‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’ লেখা।

বইটি পাওয়া যাচ্ছে শিশু চত্বরে কালান্তর স্টলে। মূল্য ১৫০ টাকা।

উল্লেখ্য, অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০-এ অদ্বৈত মারুতের মোট পাঁচটি শিশুতোষ গল্পগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। ‘ভূতু কুতু ও তুমি’ পাওয়া যাবে আলোঘর প্রকাশনীর স্টলে (২৭২-৭৩-৭৪)। বইটির প্রচ্ছদ ও অলংকরণ করেছেন শিল্পী রাজিব রায়। ‘মেঘের মেয়ে বৃষ্টি’ পাওয়া যাবে কালান্তর স্টলে (শিশু চত্বর ৭৫৭-৫৮)। পৃষ্ঠায় পৃষ্ঠায় রঙিন ছবি। বইটির প্রচ্ছদ ও মজার মজার ছবি আঁকিয়েছে বিপ্লব চক্রবর্ত্তী। কিনতে পারবে ১৫০ টাকায়।

‘হাসির ফেরিওয়ালা’ প্রকাশিত হয়েছে বইপুস্তক প্রকাশন থেকে (৭২৪)। বইটির প্রচ্ছদ ও অলংকরণ করেছেন আলমগীর জুয়েল। কিনতে পারবে ১০০ টাকায়। ‘নীলকুঠি পুকুর’ পাওয়া যাবে দেশ পাবলিকেশন্সের স্টলে (২৫৩-৫৪-৫৫)। প্রচ্ছদ ও অলংকরণ করেছেন আলমগীর জুয়েল। কিনতে পারবে ১০০ টাকার মধ্যেই। আর ‘টুটলু ও তার কুড়িয়ে পাওয়া বিড়ালছানা’ পাওয়া যাবে শিশু গ্রন্থকুটির স্টলে (শিশুচত্বর ৮০৭-০৮)। প্রচ্ছদ ও অলংকরণ করেছেন শাহীনুর আলম শাহীন। মূল্য ১৮০ টাকা।

অমৃতবাজার/আরইউ