ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৪ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

‘চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য সম্মাননা পদক’ পেলেন ইবি অধ্যাপক রবিউল ও মনজুর


ইবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১:২২ পিএম, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, রোববার
‘চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য সম্মাননা পদক’ পেলেন ইবি অধ্যাপক রবিউল ও মনজুর

সাহিত্যে গবেষণাক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ‘চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য সম্মাননা পদক’-২০১৭ পেয়েছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের দুই অধ্যাপক ড. মো: রবিউল হোসেন ও ড. মো: মনজুর রহমান। চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে শনিবার সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা শিল্পকলা একাডেমির মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত ‘এপার বাংলা ওপার বাংলা সাহিত্য সম্মেলন’-২০১৭ অনুষ্ঠানে তাদের হাতে এ পদক তুলে দেয়া হয়।

গবেষণার পৃথক দুই ক্যাটাগরিতে তারা এই পদক পান। ড. রবিউল হোসেন সমাজ, সংস্কৃতি ও সাহিত্য বিষয়ক গবেষণায় এবং ড. মনজুর রহমান ভাষাবিজ্ঞান চর্চা ও সাহিত্য গবেষণায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এ সম্মাননা লাভ করেন।

সম্মাননা ও পদক প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ তৌহিদ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম। এছাড়া দুই বাংলার প্রখ্যাত সাহিত্যিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক, পশ্চিমবঙ্গের কথাসাহিত্যিক আবুল বাশার প্রমূখ।

উল্লেখ্য, ড. রবিউল হোসেন চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর  ডিগ্রী অর্জন করেন এবং ২০১২ সালে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি তার গবেষণা কর্মের জন্যে ইতোমধ্যেই ‘জাতীয় কবি স্মৃতি সম্মাননা পদক’, ‘তরুণ কবি ও লেখক পদক’ এবং ‘মহাকবি মধুসূদন পদক’ লাভ করেছেন।

ড. মনজুর রহমান চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর উপজেলার খয়েরহুদা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর  ডিগ্রী অর্জন করেন এবং একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘প্রাচীন ও মধ্যযুগের বাংলা কাব্যে শব্দ ব্যবহারের ক্রমবিবর্তন’ শীর্ষক গবেষণার জন্য ২০১৪ সালে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি তার গবেষণাকর্মের জন্যে ২০১৬ সালে ‘মহাকবি মধুসূধন পদক’ লাভ করেন।

অমৃতবাজার/আতিকুর/সুজন