ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮ | ৭ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

একুশের গ্রন্থমেলার জন্য ৬৬২টি স্টল বরাদ্দ দিয়েছে বাংলা একাডেমি


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:৩৩ পিএম, ০৮ জানুয়ারি ২০১৮, সোমবার
একুশের গ্রন্থমেলার জন্য ৬৬২টি স্টল বরাদ্দ দিয়েছে বাংলা একাডেমি

অমর একুশের গ্রন্থমেলায় অংশ্রগ্রহণের জন্য আজ বাংলা একাডেমি থেকে স্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এবার মোট ৬৬২টি স্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। গত মেলার চেয়ে এবার স্টলের ইউনিট বৃদ্ধি পেয়েছে ১৩৩টি।

এবারের মেলায় নতুন ২৪টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানকে স্টল দেয়া হয়েছে। বেড়েছে প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ১২টি। গতবার প্যাভিলিয়ন ছিলো ১১টি। এবার এ প্যাভিলিয়ন বরাদ দেয়া হয়েছে মোট ২৩টি। বরাদ্দ দেয়া স্টলের তালিকা প্রকাশ করে সোমবার বাংলা একাডেমির নোটিশ বোর্ডে টানিয়ে দেয়া হয়েছে।

বাংলা একাডেমির পরিচালক ও একুশে গ্রন্থমেলা কমিটির সদস্য সচিব ড.জালাল আহমেদ জানান, বরাদ্দপ্রাপ্ত প্রকাশনা সংস্থাগুলোর মাঝে আজ থেকেই আবেদনপত্র দেয়া হবে। স্টলের ভাড়ার টাকাসহ আবদেনপত্র আজ থেকেই সংশ্লিষ্ট বিভাগে জমা নেয়া হবে। আবদনপত্র জমা শেষ হওয়ার পর লটারীর মাধ্যমে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গনে এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের স্টল বরাদ্দ দেয়া হবে। তিনি জানান একাডেমির বয়রাতলায় অন্যান্যবারের মতো লিটলম্যাগ স্টল থাকবে। দু’একদিনের মধ্যেই লিটলম্যাগ স্টলবরাদ দেয়া হবে।

তিনি জানান অন্যান্য বারের মতো এবারের মেলাতেও দোয়েল চত্বর থেকে ঢাবির টিএসসি পর্যন্ত সড়কটিতে কোন হকার বসতে দেয়া হবে না। এই সড়কটি দশনার্থীদের চলাচলের জন্য উন্মক্তু থাকবে।

এবারের মেলায় মোট প্যাভিলিয়ন দেয়া হয়েছে ২৩টি। এর মধ্যে পুরনো প্রকাশনা সংস্থা ১১ এবং নতুন প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১২টি সংস্থাকে। পুরনো প্রতিষ্ঠান প্যাভিলিয়ন পেয়েছে, আগামী প্রকাশনী, উৎস, অনুপম, অন্বেষা, অবসর, অনন্যা, কাকলী, সময়, মওলা, পাঠক সমাবেশ, পাঞ্জেরী ও অন্য প্রকাশ। নতুন প্যাভিলিয়ন পেয়েছে আনন্দ পাবলিশার্স, নালন্দা, শোভা,তাম্রলিপি,ইত্যাদি,উৎস প্রকাশন,প্রথমা,কথা প্রকাশন,বাংলা প্রকাশ ও জার্নিম্যান বুকস।

চার ইউনিটের স্টল দেয়া হয়েছে মোট ১৮টি প্রতিষ্ঠানকে। এগুলো হচ্ছে- শিখা, অক্ষর, অ্যাডর্ণ, সাহিত্য প্রকাশ, দিব্য, নবযুগ, আহমেদ পাবলিশার্স, ইউপিএল, চারুলিপি, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র, রোদেলা, বিদ্যা, স্টুডেন্ট ওয়েজ, জোনাকী, শব্দশৈলী, ইউনিভার্সেল একাডেমিকে। ৩ ইউনিটের স্টল দেয়া হয়েছে ৩২টি প্রতিষ্ঠানকে। এর মধ্যে ১৪টি প্রতিষ্ঠান শিশুকিশোর বই প্রকাশনা সংস্থা। এগুলো হচ্ছে, নওরোজ, সাহিত্যমালা, জ্যোস্না, সৃজনী, বিজয়, একুশে বাংলা, মুক্তধারা, চন্দ্রাবতী, শ্রাবণ, অঙ্কুর, জ্ঞানকোষ, সাহিত্যবিলাস, মিজান পাবলিশার্স, সুবর্ণ, গতিধারা, জনতা, সূচীপত্র, জাগৃতি, সন্দেশ, জাতীয় সাহিত্য প্রকাশ ও ভাষাচিত্র।-বাসস

অমৃতবাজার/শাওন