ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯ | ৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে ১০৮৬১ জনের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার
মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে ১০৮৬১ জনের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

 

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরাধীন ‘কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন’ প্রকল্পের অধীনে দৈনিক ভিত্তিতে সম্পূর্ণ অস্থায়ীভাবে তিনটি পদে ১০,৮৬১ জনকে নিয়োগ দেয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশী স্থায়ী নাগরিকদের কাছ থেকে আবেদনপত্র আহ্বান করেছে।

পদের নাম : জেন্ডার প্রোমোটার

পদ সংখ্যা- ১০৯৫টি। বেতন-দৈনিক ভিত্তিক ১ হাজার টাকা

যোগ্যতা : এইচএসসি পাস এবং কম্পিউটার চালনায় (মাইক্রোসফট অফিস) বাস্তব অভিজ্ঞতা। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ২ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা।

পদের নাম : সঙ্গীত শিক্ষক

পদ সংখ্যা- ৪,৮৮৩টি। বেতন- দৈনিক ভিত্তিক ৫০০ টাকা

যোগ্যতা : এসএসসি পাস এবং সঙ্গীত বিষয়ে ডিপ্লোমা/শিল্পকলা একাডেমীর প্রশিক্ষণ সনদপ্রাপ্ত/রেডিও টিভির তালিকাভুক্ত শিল্পী/সঙ্গীত শিক্ষক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত কোন একাডেমীতে কর্মরত।

পদের নাম : আবৃত্তি শিক্ষক

পদ সংখ্যা-৪,৮৮৩টি। বেতন- দৈনিক ভিত্তিক ৫০০ টাকা

যোগ্যতা : এসএসসি পাস এবং সঙ্গীত বিষয়ে ডিপ্লোমা/শিল্পকলা একাডেমীর প্রশিক্ষণ সনদপ্রাপ্ত/রেডিও টিভির তালিকাভুক্ত শিল্পী/আবৃত্তি শিক্ষক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত কোন একাডেমীতে কর্মরত।

উভয় পদে মহিলা প্রার্থীদের অগ্রাধিকার রয়েছে।

আবেদন প্রক্রিয়া

সব পদে আবেদনের জন্যই আবেদনকারীদের ২৩ আগস্ট ২০১৯ তারিখের মধ্যে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিতভাবে আবেদন করতে হবে।

সব পদে নিয়োগের জন্য প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। যদি কোনো কারণে সংশ্লিষ্ট উপজেলার যোগ্য প্রার্থী পাওয়া না যায়, সে ক্ষেত্রে পাশের উপজেলা থেকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

সরকার নির্ধারিত কোটায় (শহীদ মুক্তিযোদ্ধা বা মুক্তিযোদ্ধা/মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের সন্তান/এতিমখানা নিবাসী ও শারীরিক প্রতিবন্ধী, উপজাতি, আনসার ও ভিডিপি) প্রার্থীদের ক্ষেত্রে কোটা-সংক্রান্ত বিষয়ে সর্বশেষ সরকারি সিদ্ধান্ত প্রযোজ্য হবে।

বয়সসীমা

১ আগস্ট ২০১৯ তারিখের মধ্যে সংশ্লিষ্ট পদের প্রার্থীদের বয়স অনূর্ধ্ব ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার পুত্র বা কন্যা, পুত্র-কন্যার পুত্র-কন্যা, প্রতিবন্ধী ও অন্যান্য প্রযোজ্য ক্ষেত্রে বয়সের সর্বোচ্চ সীমা ৩২ বছর।

আবেদনের নিয়ম

আবেদনপত্রের খামের ওপর ডান পাশে প্রার্থীর নাম, নিজ উপজেলা,জেলার নাম উল্লেখ করতে হবে। বিশেষ কোটায় আবেদনকারীকে খামের ওপর কোটার নাম উল্লেখ করতে হবে।

আবেদনপত্রের সঙ্গে প্রার্থীর সম্প্রতি তোলা তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি সংযুক্ত করতে হবে।

আবেদনপত্রের সঙ্গে শিক্ষাগত যোগ্যতা, অভিজ্ঞতার সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্মনিবন্ধন, নাগরিকত্ব সনদ জমা দিতে হবে। সব সনদ প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তার সত্যায়িত হতে হবে।

অমৃতবাজার/এএস