ঢাকা, রোববার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ | ১৩ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভয়ানক লাভা উগড়ে দিচ্ছে তাল


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৩:৩৪ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার | আপডেট: ০৩:৩৬ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার
ভয়ানক লাভা উগড়ে দিচ্ছে তাল ভয়ানক লাভা উগড়ে দিচ্ছে তাল আগ্নেয়গিরি। ছবি: সংগৃহীত

তাল, বিশ্বের সবচেয়ে ছোট, কিন্তু অতি সক্রিয় একটি আগ্নেয়গিরি। সোমবার সকাল থেকে উগড়ে দিচ্ছে ভয়ঙ্কর লাভা, যা মাত্রা ছাড়িয়ে গেলে ছাইভস্ম করে দিতে পারে পুরো একটা জনপদ। ফিলিপিন্সের দ্বিতীয় সক্রিয় এই আগ্নেয়গিরিটি অবস্থিত রাজধানী ম্যানিলা থেকে ৭০ কিলোমিটার দক্ষিণে। কর্তৃপক্ষ হুঁশিয়ারি দিয়েছে, `কয়েক ঘণ্টা বা কয়েক দিনের` মধ্যেই `বিপজ্জনক অগ্ন্যুৎপাতের` আশঙ্কা রয়েছে।

স্থানীয় সময় সোমবার সকালের দিকে তাল আগ্নেয়গিরি থেকে দুর্বল লাভা উদগীরণ শুরু হয়। এর আগে আগ্নেয়গিরিটি থেকে বিপুল মাত্রায় ছাই উদগীরণের শুরু হলে স্থানীয় ৮ হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই এই লাভা উদগীরণ শুরু হয়।

একটি লেকের মাঝখানে দ্বীপের মতো জায়গায় অবস্থিত আগ্নেয়গিরিটি বিশ্বের সবচেয়ে ছোট এবং ফিলিপিন্সের দ্বিতীয় সক্রিয় আগ্নেয়গিরি। গত সাড়ে চারশ বছরে ৩৪ বার অগ্ন্যুৎপাত করেছে এটি।

ফিলিপিন্স ইন্সটিটিউট অব ভলকানোলজি এন্ড সিসমোলজি (ফিভোলক্স) এর এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, `তাল আগ্নেয়গিরির মধ্যে তীব্র উত্তেজনা তৈরি হয়েছে, যা চৌম্বকীয় উদগীরণ ঘটাতে পারে রাত ২:৪৯ থেকে ভোর ৪:২৮-এর মধ্যে। দুর্বল লাভার সাথে সাথে বজ্রপাতও হতে পারে।`

কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক রেনাটা সোলিডাম বলেন, `ভয়ংকর বিস্ফোরণের চিহ্ন যেমন, ছাই, পাথর, গ্যাস মিশ্রিত লাভা যা আনুভূমিকভাবে ঘণ্টায় ৬০ কিলোমিটার বেগে ধাবিত হয় তা এখনো দেখা যায়নি।`

ফিভোলক্স সতর্ক সংকেতের মাত্রা তিন থেকে বাড়িয়ে চার করা হয়েছে। এ ধরণের ঘটনায় সর্বোচ্চ সতর্ক সংকেত দেয়া হয় পাঁচ।

কর্তৃপক্ষ আরও সতর্ক করে বলেছে যে, অগ্ন্যুৎপাতের কারণে সুনামির আশঙ্কা রয়েছে, যা উদগীরণের পর লাভা পানিতে পড়ার কারণে পানি স্থলভাগে চলে আসতে পারে এবং ঢেউ তৈরি করতে পারে।

অমৃতবাজার/এসএইচএম