ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানে ভয়াবহ ভূমিকম্পে মৃত্যের সংখ্যা বেড়ে ২০


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫৫ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার | আপডেট: ১১:০৫ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার
পাকিস্তানে ভয়াবহ ভূমিকম্পে মৃত্যের সংখ্যা বেড়ে ২০

 

ভয়াবহ এক ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চল। ৫ দশমিক ৮ মাত্রার এ ভূ-কম্পনে এখন পর্যন্ত ২০ জনের প্রাণহানীর খবর পাওয়া গিয়েছে। এতে আহত হয়েছেন আরও তিন শতাধিক মানুষ। মঙ্গলবার বিকেলে দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের ঝিলাম শহর থেকে ১৪ মাইল দূরবর্তী মিরপুর নামক স্থানে এই শক্তিশালী ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের মিরপুর শহরে। ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা গেছে, মিরপুর এলাকার একটি প্রধান সড়কে বিশাল ভূমিধস হয়েছে।

ডনের খবরে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার বিকেলে মিরপুরে ওই ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। মাত্র ৮ থেকে ১০ সেকেন্ড স্থায়ী ছিল কম্পনটি। ঘটনার পর থেকে মিরপুরে ভূমিকম্পের পরের পরাঘাত নিয়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পাকিস্তানের প্রধান আবহাওয়াবিদ মোহাম্মদ রিয়াজ বলেছেন, ‘এই কম্পন ১০ কিলোমিটার গভীর ছিল। পুরো পাঞ্জাব প্রদেশসহ খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের কিছু অংশে কম্পন অনুভূত হয়েছে। তবে ভয়াবহ আঘাতটা হেনেছে মিরপুরে।’

দেশটির সেনাবাহিনী জানিয়েছে, দুর্যোগের পরপরই ঘটনাস্থলে চিকিৎসাসেবার দল পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, ভয়াবহ এ ভূমিকম্পের পর দেশটির রাজধানী ইসলামাবাদ ও ভারতের রাজধানী দিল্লিতেও কম্পন অনুভূত হয়েছে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে।

এর আগে ২০০৫ সালের অক্টোবরে পাকিস্তানে এক শক্তিশালী ভূমিকম্পে কয়েক হাজার মানুষের হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। ৭.৬ মাত্রার সেই ভূমিকম্পে ৭৪ হাজারেরও বেশি লোক মারা যায়। এরপর ২০১৫ সালের অক্টোবরে ৭.৫ মাত্রার আরেকটি ভূমিকম্পে মারা যায় চার শতাধিক মানুষ।

অমৃতবাজার/এএস