ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘শ্রীলঙ্কায় ৯ বোমা বহনকারীর একজন নারী’


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২:৫৫ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার
‘শ্রীলঙ্কায় ৯ বোমা বহনকারীর একজন নারী’

শ্রীলঙ্কায় গির্জা ও অভিজাত হোটেলে সিরিজ হামলায় যে নয়জন বোমা বহন ও বিস্ফোরণের সঙ্গে জড়িত ছিলেন, তাঁদের মধ্যে এক নারী সদস্য ছিলেন বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

আজ বুধবার প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্রটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুয়ান জয়াবর্ধনের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা থমসন রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

গত রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোসহ দেশটির বিভিন্ন এলাকায় গির্জা ও হোটেলে সব মিলিয়ে আটটি বিস্ফোরণ ঘটে। ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে উপলক্ষে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরা গির্জায় থাকা অবস্থায় বিস্ফোরণগুলো ঘটে। এই হামলায় সবশেষ নিহতের সংখ্যা বেড়ে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫৯ জনে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এখন পর্যন্ত ৫৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এ ঘটনার দায় স্বীকার করেছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন তথাকথিত ইসলামিক স্টেট (আইএস)। তারা এ ঘটনার মূল হোতাসহ আটজনের ছবিও প্রকাশ করেছে।

শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষাবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী রুয়ান জয়াবর্ধনে বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের হামলার প্রতিশোধ নিতে এই হামলা চালানো হয়।’

এ হামলায় নিহত হয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুপাতো ভাই ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নাতি জায়ান চৌধুরী (৮)।  জায়ানের বাবা মশিউল হক চৌধুরী আহত হয়েছেন। তাঁকে সেখানে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই সময় হোটেলের কক্ষে অবস্থান করায় বেঁচে যান শেখ সেলিমের মেয়ে শেখ সোনিয়া ও সোনিয়ার আরেক ছেলে জোহান।

অমৃতবাজার/পিকে