ঢাকা, শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মদিনায় মায়ের সামনেই ছেলের শিরচ্ছেদের নেপথ্যের কাহিনী


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৩:২৭ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সোমবার | আপডেট: ০৩:৪৯ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, সোমবার
মদিনায় মায়ের সামনেই ছেলের শিরচ্ছেদের নেপথ্যের কাহিনী

পবিত্র মদিনায় মহানবী হজরত মুহম্মদ (সা.)-এর রওজা মোবারক জিয়ারতে গিয়ে নির্মমভাবে নিহত খুন হলো শিয়া সম্প্রদায়ের ছয় বছরের শিশু জাকারিয়া জাবের। তার মায়ের মুখে দুরুদ শরিফ শোনার পর গাড়ির কাচ ভেঙে তা দিয়ে মায়ের সামনেই শিশুটিকে নির্মমভাবে হত্যা করে এক ট্যাক্সিচালক।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, মাজহাবগত বিদ্বেষের কারণেই এমন খুনের শিকার হলো শিশুটি। এরই মধ্যে শিশুটির জানাজা সম্পন্ন হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে শিশুটিকে নিয়ে তার মা একটি ট্যাক্সিতে মদিনায় হজরত মুহম্মদ (সা.)-এর রওজা মোবারকের দিকে যাচ্ছিলেন। ট্যাক্সিতে উঠে তিনি দরুদ শরিফ পাঠ করেন। এতেই ট্যাক্সিচালক তাকে জিজ্ঞেস করেন- তিনি শিয়া সম্প্রদায়ের কিনা? উত্তরে ওই নারী বলেন- জি।

এ সময় ট্যাক্সি থামিয়ে চালক নিচে নেমে আসেন। এরপর ট্যাক্সির ভেতর থেকে শিশুকে নামিয়ে ট্যাক্সির কাচ ভেঙে তা দিয়ে মায়ের সামনেই শিশুটিকে গলাকেটে হত্যা করেন। মা এই দৃশ্য দেখে সেখানেই জ্ঞান হারান।

মদিনায় এমন হত্যাকাণ্ডে সবাই বলছেন, কতটা উগ্র ও হিংস্র হলে নিষ্পাপ শিশুকে এত নির্মমভাবে হত্যা করতে পারে একজন মানুষ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে ব্যক্তি একজন নিষ্পাপ শিশুকে হত্যা করেছে, সে নির্দ্বিধায় গোটা মুসলিম সমাজ- এমনকি গোটা পৃথিবীকেও ধ্বংস করে দিতে পারে।

অমৃতবাজার/পিকে