ঢাকা, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯ | ৮ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মধ্যপ্রাচ্যকে কব্জা করতে কাতারকে চায় যুক্তরাষ্ট্র


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৭:৩৫ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার
মধ্যপ্রাচ্যকে কব্জা করতে কাতারকে চায় যুক্তরাষ্ট্র

ওয়াশিংটনের সন্ত্রাস বিরোধী প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও কাতারের সহযোগিতা চেয়েছেন। রোববার দোহায় দ্বিতীয় মার্কিন-কাতারের কৌশলগত বৈঠকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাইক পম্পেও বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও কাতার বিভিন্ন আঞ্চলিক সমস্যা নিয়ে এক সঙ্গে কাজ করবে। বক্তব্যে তিনি আফগানিস্তান ও ইরাকের কথা উল্লেখ করেন। খবর ইয়ানা শাফাকের।

এ সময় আল-উদিদ এয়ার বেসে ১৩ হাজার মার্কিন সৈন্যদের আপ্যায়ন করার জন্য তিনি কাতারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়া কাতার ২০২২ সালে ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজন করবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পম্পেও এবং কাতারের শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুল্লাহ বিন জসিম আল থানি বেশ কয়েকটি অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা চুক্তি সম্পাদন করেন। এর আগে মাইক পম্পেও মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশ পরিদর্শন করেছেন। এর মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং মিসর রয়েছে। পম্পেও কাতার পরিদর্শন শেষে সৌদি আরবে যাবেন।

২০১৭ সালের মধ্যবর্তী সময়ে সন্ত্রাসীদের মদদ দেয়ার অভিযোগে সৌদি জোট কাতারের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক অবরোধ দেয়। এ বৈঠকে খাসোগি হত্যা নিয়ে সৌদি যুবরাজের কঠোর সমালোচনা করেন মাইক পম্পেও।

মার্কিন পররাষ্টকমন্ত্রী মাইক পম্পেও সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যা অপ্রত্যাশিত উল্লেখ করে বলেন, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কাছে নতুন উত্তর উত্তর পেতে তিনি কাজ করবেন।

সাংবাদিক জামাল খাসোগি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক ছিলেন। তিনি ছিলেন সৌদি রাজ পরিবারের কঠোর সমালোচক। গত বছরের ২ অক্টোবর তুরস্কের সৌদি কন্স্যুলেট অফিসে ঢুকার পর তাকে হত্যা করা হয়। প্রথম দিকে সৌদি আরব খাসোগি হত্যার বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে বিভিন্ন ধরনের বিবৃতি দিয়ে আসছে। তবে এক পর্যায়ে খাসোগিকে কন্স্যুলেটের ভেতর হত্যার কথা স্বীকার করে সৌদি আরব।

অমৃতবাজার/ইকরামুল