ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ | ৩০ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

লিবিয়ায় নৌকাডুবিতে শতাধিক নিহত


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫৮ এএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার
লিবিয়ায় নৌকাডুবিতে শতাধিক নিহত

উন্নত জীবনের আশায় আফ্রিকা অঞ্চলের অনুন্নত ও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশগুলোর লোকজন প্রায়ই ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপের উদ্দেশে যাত্রা করে থাকে। নৌকায় করে বেপোরোয়াভাবে সাগর পাড়ি দেয়ার সময় অনেকের সলিল সমাধি হয়ে থাকে। তারপরও বন্ধ হচ্ছে না অসহায় ও দরিদ্র মানুষগুলোর ইউরোপ গমনের এই প্রচেষ্টা।

লিবিয়া উপকূলে এক নৌ দুর্ঘটনায় চলতি মাসের প্রথম দিনে ২০ শিশুসহ শতাধিক নিহত হয়েছে। সাহায্য সংস্থা মেডিসিনস স্যান্স ফ্রন্টিয়ার্স (এমএসএফ)’র বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা।

সোমবার এক বিবৃতিতে এমএসএফ জানায়, ওই দুর্ঘটনায় শতাধিক নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৭ মাস বয়সী জমজ শিশুও রয়েছে। তবে তারা নিহিতদের নির্দিষ্ট কোনো সংখ্যা উল্লেখ করেনি। দুর্ঘটনার পর সাগর থেকে জীবিত উদ্ধারকৃতদের সংখ্যাও বলেনি সংস্থাটি।

এমএসএফ বলছে, গত পহেলা সেপ্টেম্বর সকালে লিবিয়া উপকূল থেকে যাত্রা শুরু করেছিল অভিবাসীদের বহনকারী দুটি নৌকা। যাত্রা শুরুর কিছুক্ষণ পর ইঞ্জিন বিকল হয়ে একটি নৌকা থেমে যায়। পরে দুপুর ১টা নাগাদ চলন্ত নৌকাটি সাগরে ডুবে যায়। এ সময় কয়েকজন যাত্রী বিধ্বস্ত নৌকার ভাঙাচোরা অংশ ধরে ভেসে থাকেন। পরদিন অর্থাৎ ২ সেপ্টেম্বর ভেসে থাকাদের উদ্ধার করে লিবিয়ার উপকূলীয় রক্ষীরা।

ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে ২০ শিশুসহ সবমিলিয়ে ১৮৫ জন যাত্রী ছিল। বেঁচে যাওয়া যাত্রীদের একজন জানান, নৌকার বেশিরভাগ যাত্রীই সাঁতার জানত না এবং তাদের অল্প কয়েকজনের কাছে লাইফ জ্যাকেট ছিল।

জাতিসংঘের হিসাব মতে, চলতি বছরের পহেলা জুলাই পর্যন্ত সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে মারা গেছে কমপক্ষে ১ হাজার মানুষ। ২০১৭ সালে এ জাতীয় ঘটনায় নিহত বা নিখোঁজ হয়েছিলো তিন হাজারের বেশি মানুষ।

অমৃতবাজার/জয়