ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ত্রিভুবন বিমানবন্দরে এবার ছিটকে পড়ল মালয়েশীয় বিমান


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:০৩ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৮, শুক্রবার
ত্রিভুবন বিমানবন্দরে এবার ছিটকে পড়ল মালয়েশীয় বিমান

নেপালের কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুর্ঘটনা হতে এবার অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন মালিন্দো এয়ারলান্সের একটি বিমানের ১৩৯ যাত্রী। বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) রাতে মালয়েশিয়ার মালিন্দো এয়ারলান্সের ওই বিমানটি উড্ডয়নের প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেমনাথ ঠাকুর জানান, মালয়েশিয়ার মালিন্দো এয়ারলাইন্সের বোয়িং বিমান-৭৩৭ কুয়ালালামপুরের উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। কিন্তু বিমান উড্ডয়নের সময় সমস্যার মুখোমুখি হন বিমানের পাইলট। বিমানটি ছিটকে রানওয়ে থেকে ৩০ মিটার দূরে কাঁদার মধ্যে আটকে যায়।

তিনি বলেন, বিমানের সব আরোহীই নিরাপদে আছেন। তবে কি কারণে এ ধরনের সমস্যা হলো সে বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানা যায়নি।

এদিকে এঘটনার পর বিমানটিকে সেখান থেকে সরানোর জন্য বিমানবন্দরে অন্যান্য বিমানের উঠা-নামা বন্ধ রাখা হয়। এতে বাইরে থেকে যেসব ফ্লাইট ওই বিমানবন্দরে নামার কথা ছিল সেগুলো অন্য বিমানবন্দরে অবতরণ করানো হয়।

এদিকে, দুর্ঘটনার পর বিমানবন্দরটি বন্ধ করে দেয়া হয় বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তবে নেপালের একমাত্র ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কতক্ষণ বন্ধ থাকবে সে ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ১২ মার্চ স্থানীয় সময় বেলা ২টা ১৮ মিনিটে নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানবন্দরেই অবতরণকালে বিধ্বস্ত হয়। এতে ৫০ জন নিহত হন, যাদের মধ্যে বেশিরভাগই বাংলাদেশি ও নেপালি।

এর আগে ২০১৫ সালের মার্চ মাসে তুর্কিস এয়ারলাইন্সের একটি বিমান ওই একই বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। এতে চারদিন ধরে বিমানবন্দর বন্ধ রাখা হয়।

অমৃতবাজার/সবুজ