ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ত্রিভুবন বিমানবন্দরের ৬ কর্মকর্তাকে বদলি


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৬:৩৮ পিএম, ১৩ মার্চ ২০১৮, মঙ্গলবার
ত্রিভুবন বিমানবন্দরের ৬ কর্মকর্তাকে বদলি

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের (এটিসি) ছয় কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। এসব কর্মকর্তাদের দুর্ঘটনার কারণে মানসিক চাপ কমাতে বদলি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।

কাঠমান্ডুর দৈনিক পত্রিকা মাই রিপাবলিকা তাদের এক অনলাইন প্রতিবেদনে বলছে, সোমবার ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার একটি বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী হওয়ায় ছয় কর্মকর্তাকে অন্য বিভাগে বদলি করা হয়েছে। মানসিক চাপ কমাতেই তাদের বদলির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।

ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্তের ঘটনার পর পরষ্পরকে দোষারোপ করে আসছে ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ এবং নেপাল এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল। তবে উদ্ধার হওয়া পাইলট ও এয়ার ট্রাফিক কর্মকর্তাদের মধ্যে কথাবলার অডিওতে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের ভুল বার্তাই বিমানটির দুর্ঘটনায় পড়ার একটি কারণ বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও এটিসির ছয় কর্মকর্তার বদলি সে কারণে কিনা সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

নেপালের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের উপমহাপরিচালক রাজন পোখারেল জানান, দুর্ঘটনার পর মানসিক চাপ কমাতে কর্মকর্তাদের বদলি খুব আদর্শ পদ্ধতি। তারা দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এবং মারাত্মভাবে মানসিক আঘাত পেয়েছেন। তাই তাদের অন্য বিভাগে বদলি করা হয়েছে যাতে তাদের মানসিক চাপ কমে আসে।

তবে অডিওবার্তা প্রকাশের পর তাদের (ছয় কর্মকর্তা) কোনো ত্রুটির কারণে বদলি করা হয়নি বলে দাবি করেন এই নেপালি কর্মকর্তা।

সোমবার দুপুরে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস বাংলার একটি বিমান বিধ্বস্তে ৪৯ জন নিহত এবং ২২ জন গুরুতর আহত হয়। আহতরা নেপালের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলা হচ্ছে। সূত্র: মাই রিপাবলিকা।

অমৃতবাজার/সুজন