ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ | ১৭ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘কিছু ভারতীয় অর্থনৈতিক কারণে অবৈধভাবে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে’


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার | আপডেট: ০২:৪১ পিএম, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার
‘কিছু ভারতীয় অর্থনৈতিক কারণে অবৈধভাবে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে’ ছবি- ভারতীয় সাংবাদিক করণ থাপার

সীমান্তের ওপারের অবস্থা শুধু আমাদের চেয়ে ভালোই নয়, বরং তা আরও ভালোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা পিছিয়ে পড়ছি। ‘কিছু ভারতীয় অর্থনৈতিক কারণে অবৈধভাবে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে’, কথাটা বাস্তবতার নিরিখে সঠিক। মানুষ খুব স্বাভাবিকভাবেই উন্নত জীবনযাপনের জন্য ভালো জায়গায় পাড়ি দেয়। যদি আমেরিকা আজ ঘোষণা করে যে তারা নাগরিকত্ব দেবে, তাহলে দেখা যাবে অর্ধেক ভারত খালি হয়ে গেছে। আসলে বলতে গেলে এর চেয়েই বেশি খালি হবে।’ রোববার ভারতের কেন্দ্রিয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জে কৃষ্ণ রেড্ডি’র বক্তব্যের জবাবে সাংবাদিক করণ থাপার এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে ভারত যেখানে শতকরা ৫ শতাংশ গতিতে এগিয়ে যাচ্ছি, বাংলাদেশ সেখানে ৮ শতাংশ হারে এগিয়ে যাচ্ছে। ভারতের অর্থমন্ত্রী সীতারাম ১৫ শতাংশ হারে করপোরেট ট্যাক্স নির্ধারণ করে, যেখানে চীনা বিনিয়োগ আকর্ষণে মরিয়া, সেখানে চীন বাংলাদেশে বিনিয়োগ করছে। বিশ্বের ধনী শহরগুলো যেমন- লন্ডন ও নিউইয়র্কে যখন বাংলাদেশের তৈরি পোশাকে ভরে গেছে, সেখানে লুধিয়ানা ও ত্রিপুরায় বানানো কাপড়ের ছোট্ট একটা অংশ জায়গা পেয়েছে।

করণ থাপার বলেন, বাংলাদেশ যেখানে রফতানি দ্বিগুণ করেছে, সেখানে ভারতের রফতানি কমেছে উল্লেখযোগ্য হারে। বাংলাদেশের পুরুষ ও নারীদের গড় আয়ু যথাক্রমে ৭১ ও ৭৪ বছর; ভারতে তা যথাক্রমে ৬৭ ও ৭০ বছর।

এই সাংবাদিক বলেন, ভারতে নবজাতকের মৃত্যুর হার প্রতি ১ হাজার জনে ২২ দশমিক ৭৩, বাংলাদেশে সে হার ১৭ দশমিক ১২। এখানে শিশু মৃত্যুর হার ২৯ দশমিক ৯৪, বাংলাদেশে ২৫ দশমিক ১৪। ৫ বছরের কম বয়সী শিশুর মৃত্যুহার বাংলাদেশে ৩০ দশমিক ১৬ শতাংশ, যা ভারতে ৩৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে ১৫ বছরের বেশি বয়সী ৭১ ভাগ নারীই স্বাক্ষর জ্ঞানসম্পন্ন, ভারতে এ হার ৬৬ শতাংশ। বাংলাদেশে ৩০ শতাংশের বেশি নারী শ্রমে যোগ দিচ্ছেন ; ভারতে এ হার মাত্র ২৩ শতাংশ। একযুগে তা ৮ শতাংশ কমেছে।

করণ থাপার আরো বলেন, ছেলে-মেয়েদের উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তির হারে ০ দশমিক ১৯ শতাংশ হারে এগিয়ে ভারত, সেখানে বাংলাদেশ ১ দশমিক ১৪ শতাংশ হারে এগিয়ে।

অমৃতবাজার/এমআর