ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শাশুড়ির পরকীয়া দেখে ফেলায় পুত্রবধূকে খুন


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:২৯ এএম, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রোববার
শাশুড়ির পরকীয়া দেখে ফেলায় পুত্রবধূকে খুন

পরকীয়ার কথা জেনে যাওয়ায় ফাঁস দিয়ে পুত্রবধূকে হত্যা করেছেন শাশুড়ি ও তার প্রেমিক। এমন অভিযোগে ওই দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন পুত্রবধূর পরিবার। ঘটনাটি ভারতের হুগলির মগরার বৈকুন্ঠপুরের।

নিহত ওই গৃহবধূর নাম অঞ্জু দত্ত। গত ২৪ জুলাই সৌমক দত্ত নামে এক যুবকের সঙ্গে বিবাহ হয় অঞ্জুর। যদিও বিয়ের আগে থেকেই এই যুগল একে অপরের পরিচিত। বৈকুন্ঠপুর এলাকাতেই সৌমকের একটি মোবাইলের দোকান রয়েছে। তাদের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসতেই দুই বাড়ি থেকে বিয়ের ঠিক হয়। কিন্তু মাত্র সাত মাসের মধ্যেই এ ঘটনা ঘটে

জানা গেছে, বিয়ের সময় অঞ্জুকে এক ব্যক্তির সঙ্গে পরিচয় করান তার শাশুড়ি এবং জানান ওই ব্যক্তি সম্পর্কে অঞ্জুর ‘মামা’ হবেন। কিন্তু পরে ওই গৃহবধূ জানতে পারেন ওই ব্যক্তির সঙ্গে তার শাশুড়ির বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে।

অভিযোগ করা হয়েছে, বিয়ের পর থেকেই অঞ্জুর ওপর অত্যাচার চালাতো তার শাশুড়ি। যখন অঞ্জু তার শাশুড়ির পরকীয়ার কথা জানতে পেরে প্রতিবাদ করে তখনই বাড়তে থাকে অত্যাচারের পরিমাণ।

অঞ্জুর পরিবারের অভিযোগ অভিযোগ, বৃহস্পতিবার রাতের দিকে অঞ্জুকে গলায় ফাঁস দিয়ে খুন করার চেষ্টা করেন তার শাশুড়ি ও মামা। খবর পেয়ে সাথে সাথেই অঞ্জুর পরিবারের লোকজন ছুটে যান তার শ্বশুর বাড়িতে। গিয়ে তারা দেখেন একটি খাটের ওপর শোয়ানো রয়েছে অঞ্জুকে। তখনও তার শরীরে প্রাণ আছে। তড়িঘড়ি তাকে মগরা হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের সদস্যরা। সেখানেই মৃত্যু হয় অঞ্জুর।

পুলিশ জানায়, অঞ্জুর পরিবারের সদস্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে তারা তদন্ত শুরু করেছে। তবে ঘটনার পর থেকেই নিখোঁজ ওই মামা পরিচয়ধারী মধুসূদন সরকার।

অমৃতবাজার/আরইউ