ঢাকা, রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যতই প্রতিবাদ হোক, মুসলিমদের তাড়িয়ে ছাড়বে বিজেপি


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার | আপডেট: ০৪:৩৩ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার
যতই প্রতিবাদ হোক, মুসলিমদের তাড়িয়ে ছাড়বে বিজেপি ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ছবি: সংগৃহীত

যতই প্রতিবাদ হোক না কেন, ভারতে বসবাসকারী মুসলিমদের তাড়িয়ে ছাড়বে ক্ষমতাসীন বিজেপি।মঙ্গলবার ভারতের লখনৌয়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) সমর্থনে আয়োজিত সভায় এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

মোদী সরকারের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) নিয়ে উত্তাল পরিস্থিতি বিরাজ করছে ভারতীয় রাজনীতিতে। একদিকে ক্ষমতাসীন বিজেপি বিতর্কিত এই আইন কার্যকর করতে একরোখা। অন্যদিকে বিরোধীদলগুলো ভারতের অসাম্প্রদায়িকতা রক্ষায় তুমুল প্রতিবাদ জানাচ্ছে মোদী সরকারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে। এদিকে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, যতই প্রতিবাদ হোক না কেন ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন কার্যকর হবেই।

লখনৌয়ের সভায় রীতিমতো হুঙ্কার ছেড়ে অমিত শাহকে বলতে শোনা যায়, যাই-ই হয়ে যাক না কেন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন দেশে প্রয়োগ করা হবেই। এসময় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি এবং অখিলেশ যাদবের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

অমিত শাহ বলেন, `এই কথা সকলকে জানিয়ে রাখি, এই আইনটি কোনওভাবেই প্রত্যাহার করা হবে না, যে যতই প্রতিবাদ করুন না কেন... আমরা বিরোধীদের ভয় পাই না, আমরা বিরোধীদের প্রতিবাদের মধ্যেই জন্মগ্রহণ করেছি।`

অমিত শাহর হুমকি বাস্তবে পরিণত হলে ভারতের কোটি কোটি মুসলিম তাদের রাষ্ট্রীয় পরিচয় হারাবেন। ইতোমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের ১ কোটি মুসলিমকে বাংলাদেশে তাড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলিপ ঘোষ। ভারতের অন্যান্য রাজ্যেও মুসলিম জনগণের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন বিজেপি নেতা ও সমর্থকরা।

একেবারে সামনে দাঁড়িয়ে সাম্প্রদায়িক এই আইনের বিরোধিতা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন যে, তিনি বেঁচে থাকতে রাজ্যে এই আইন প্রয়োগ করতে দেওয়া হবে না। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের মাধ্যমে ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে প্রতিবাদ জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিও। এই আইনের বিরোধিতায় দেশ জুড়ে সরব হয়েছেন অখিলেশ যাদব সহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের অনেক নেতাই। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চলছে পুরো ভারতজুড়ে।

বিরোধীদের উদ্দেশ্যে মোদী সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, `বিরোধীরা এই আইনের প্রয়োজনীয়তা দেখতে পাচ্ছেন না কারণ তাঁদের চোখ ভোটব্যাঙ্ক রাজনীতির মুখোশে আটকা রয়েছে।`

অমৃতবাজার/এসএইচএম