ঢাকা, বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঝুলন্ত অবস্থায় খেতে হয় খাবার এই রেস্তোরাঁয়


অমৃতবাজার রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:৩৩ এএম, ৩১ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
ঝুলন্ত অবস্থায় খেতে হয় খাবার এই রেস্তোরাঁয়

অনেক রেস্তোরাঁয় পছন্দের খাবার খেয়েছেন? তবে কখনও খেয়েছেন ঝুলন্ত রেস্তোরাঁয়। অন্যরকম এক রেস্তোরাঁ, যেখানে ঝুলন্ত অবস্থায় খাবার খেতে হয়।


ইন্টারনেটের যুগে রেস্তোরাঁয় খাওয়াদাওয়া নতুন কোনো ব্যাপার নয়। ভালোমন্দ খেতে ইচ্ছা করলেই এখন বেশিরভাগ মানুষ ভিড় জমান রেস্তোরাঁয়।
‘ফ্লাই ডাইনিং’ রেস্তোরাঁ। নয়ডার সেক্টর ৩৮-এর এই রেস্তোরাঁয় কিন্তু হেঁটে ঢোকা যায় না। কারণ এর বিশেষত্ব হলো- এই রেস্তোরাঁ মাটি থেকে প্রায় ১৬০ ফুট উঁচুতে অবস্থিত।

এই রেস্তোরাঁয় ক্রেনের সাহায্যে ঝুলছে ২৪ আসনবিশিষ্ট একটি টেবিল। তার আশপাশে চেয়ার বসে জমিয়ে খাবার খেতে পারেন আপনি।

টেবিলের মাঝের অংশেই চলাফেরা করছেন ওয়েটার ও রেস্তোরাঁর অন্যান্য কর্মী। খাওয়াদাওয়ার জন্য খাদ্য রসিকরা সময় পাবেন ৪০ মিনিট।


প্রতিদিনই সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকে এই রেস্তোরাঁ। শুধু গর্ভবতী ও শিশুরা এই রেস্তোরাঁয় ঢুকতে পারেন না। নানা পদের খাবারের পাশাপাশি এই রেস্তোরাঁয় বাড়তি পাওনা অ্যাডভেঞ্চার।

এবার নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছা করছে কে এমন অভিনব রেস্তোরাঁ তৈরি করলেন। ভারতের নিখিল কুমার নামে এক ব্যক্তি এই হোটেলের মালিক।

অমৃতবাজার/ কেএসএস