ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯ | ৮ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

একাধিক পুরুষের সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত স্ত্রীকে…


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২:২৭ এএম, ২২ জুলাই ২০১৯, সোমবার
একাধিক পুরুষের সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত স্ত্রীকে…

 

একাধিক পুরুষের সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল স্ত্রীর। সেই সম্পর্কের জেরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে নিত্য অশান্তি লেগেই ছিল। শেষে নগদ তিরিশ হাজার টাকায় কসাইকে দিয়ে স্ত্রীকে খুন করাল স্বামী। এমনই লোমহর্ষক ঘটনার রহস্য ফাঁস করল পশ্চিমবঙ্গের বালি পুলিশ।

জানা গেছে, গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ বালি জেটিয়া হাউসের কাছে গঙ্গার ঘাটে দুটি ব্যাগ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় মানুষ। তারমধ্যে কালো রঙের ব্যাগটি খোলা থাকায় তাতে এক মহিলার কাটা দেখা যায়। সঙ্গে সঙ্গেই খবর দেওয়া হয় বালি থানায়।  

খবর পেয়ে পুলিশ এসে উদ্ধার করে ব্যাগ দুটি। দেখা যায়, কালো ব্যাগে রয়েছে কাটা মুন্ডু ও সেইসঙ্গে দেহের উপরের অংশ টুকরো টুকরো করে কাটা। অন্য একটি চটের ব্যাগ থেকে পাওয়া যায় চপার জাতীয় পাঁচটি  ধারালো অস্ত্র ও জামাকাপড়।

এ খুনের তদন্তে নেমে পুলিশ প্রথমে ভেবেছিল, দেহ টুকরো টুকরো করে কেটে ব্যাগে ভরে কেউ গঙ্গায় ফেলে দিয়ে গেছে। কিন্তু ব্যাগ দুটি পাওয়ায়, পুলিশ নিশ্চিত হয় একসঙ্গে দুটি ব্যাগ ভেসে আসতে পারে না। অর্থাৎ ব্যাগ দুটি কেউ ফেলে দিয়ে গেছে। সেইসঙ্গে এই ঘটনায় একাধিক ব্যক্তি জড়িত থাকার বিষয়েও নিশ্চিত হয় পুলিশ। এরপরই পরিচয় জানানোর জন্য মহিলার কাটা মুণ্ডুর ছবি থানায় পাঠানো হয়।

জানা যায়, শিবপুর থানা এলাকার গণেশ চ্যাটার্জি লেনের বাসিন্দা সোনি রজক নামে এক মহিলার নামে নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়েছে। যার সঙ্গে উদ্ধার হওয়া কাটা মুণ্ডর মিল রয়েছে। এরপরই পুলিশ পেশায় ধোপা উপেন্দ্র রজককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। ইতিমধ্যে উপেন্দ্র রজক এলাকায় রটিয়ে দিয়েছিল যে, তাঁর স্ত্রী অন্য এক যুবকের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছে।  

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই উপেন্দ্র রজকের কথায় অসঙ্গতি মেলে এবং পরে সে পরকীয়ার জন্য স্ত্রীকে খুন করানোর কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অমৃতবাজার/এএস