ঢাকা, রোববার, ২৬ মে ২০১৯ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঝড়ে লণ্ডভণ্ড ভারত, নিহত ৩১


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২:৪৫ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯, বুধবার
ঝড়ে লণ্ডভণ্ড ভারত, নিহত ৩১

ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় তিনটি রাজ্যের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ভয়াবহ ঝড় ও বজ্রপাতে ৩১ জন নিহত হয়েছে। এতে হত হয়েছে আরো বহু মানুষ। ওই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার রাতে মধ্য প্রদেশ, রাজস্থান ও মণিপুর রাজ্যসহ দেশের বিভিন্ন স্থাণে আঘাত হানে ঝড়টি।

ঝড়ে হতাহতের ঘটনায় বুধবার গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে নিহতদের পরিবার পিছু ২ লাখ ও আহতদের জন্য ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে গুজরাটে আজই প্রধানমন্ত্রীর তিনটি জনসভা করার কথা রয়েছে। সাবরকান্ঠায় যেখানে সভা করার কথা রয়েছে, বিধ্বংসী ঝড়ে সেখানকার প্যান্ডেলের তাঁবু উড়ে যাওয়ায় সভাস্থল মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রাজ্যের বিভিন্নস্থানে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে যেসব হোর্ডিং লাগানো ছিল তা ভেঙে পড়েছে। রাত থেকেই এসব জরুরিভিত্তিতে মেরামত করার চেষ্টা চলছে।

প্রধানমন্ত্রীর নিজ রাজ্য গুজরাটে মোট নয়জন নিহত হয়েছে। রাজ্যের আহমদাবাদ, রাজকোট, বনাসকান্ঠা, পাটন, মোহসেনা, সাবরকান্ঠাসহ বিভিন্নস্থানে কৃষকের ফসল সম্পূর্ণভাবে নষ্ট হয়ে গেছে। কয়েকটি রাজ্যে ঝড়ের পাশাপাশি শিলাবৃষ্টিতে ফসলের মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে।

মধ্য প্রদেশে প্রাকৃতিক দুর্যোগে এ পর্যন্ত ১৩ জন নিহত হয়েছে। এখানে জনজীবন বিপর্যস্ত হওয়াসহ বজ্রপাতে তিনজন আহত হয়েছে।

রাজস্থানে এ পর্যন্ত নয়জন মারা গেছে এবং কমপক্ষে ২০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছে। রাজস্থানের উদয়পুরে কমপক্ষে আটশ’ বিদ্যুতের খুঁটি এবং ৭০ টি ট্রান্সফরমার নষ্ট হয়ে গেছে। উদয়পুরে রেল স্টেশনের টিনের চাল উড়ে গেছে। এছাড়া বেশ কিছু কাঁচা বাড়ি ধ্বসে, প্রাচীর ধ্বসে এবং বজ্রবিদ্যুতের ছোবলে দুই শিশুসহ ছয়জন মারা গেছে। আলওয়ারে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে বজ্রপাতে একজন নিহত ও বিয়েতে অংশ নেয়া ১৪ জন আহত হয়েছেন।

আবহাওয়া বিভাগ থেকে বুধবার দেশের বিভিন্ন রাজ্যে প্রতি ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড় ও বৃষ্টির সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

অমৃতবাজার/আরএইচ