ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মধ্য আকাশে বিমানের জ্বালানি শেষ-বিকল ল্যান্ডিং সিস্টেম, অতঃপর...


অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৩ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার
মধ্য আকাশে বিমানের জ্বালানি শেষ-বিকল ল্যান্ডিং সিস্টেম, অতঃপর...

ভারতের দিল্লি থেকে নিউ ইয়র্কের জেএফকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে ১১ সেপ্টেম্বর রওনা দেয় এয়ার ইন্ডিয়ার বোয়িং ৭৭৭–৩০০ বিমানটি। যাত্রী এবং কর্মী মিলিয়ে ৩৭০ জন নিয়ে ছিল বিমানটিতে। কিন্তু মাঝ পথেই দেখা দিল বিপত্তি। জ্বালানি অত্যন্ত কম। তার উপর আবহাওয়া এতোটাই খারাপ যে রানওয়ে দেখা যাচ্ছিল না। এই অবস্থায় সম্পূর্ণ নিজস্ব দক্ষতায় এবং দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে অন্য বিমানবন্দরে নিরাপদে বিমান নামিয়েছিলেন পাইলট। ঘটনাটি এয়ার ইন্ডিয়ার এআই-১০১ ফ্লাইটের।

সম্প্রতি ওই ঘটনার রিপোর্ট এয়ার ইন্ডিয়াকে দিয়েছে জেএফকে বিমানবন্দরের এটিসি। এয়ার ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে সেভাবে স্পষ্ট করে কিছু না জানানো হলেও তারপরই বিষয়টি সামনে আসে।

দিল্লি থেকে নিউ ইয়র্কগামী এয়ার ইন্ডিয়ার ওই বোয়িং ৭৭৭–৩০০ বিমানটি ছিল নন স্টপ। কিন্তু জেএফকে বিমানবন্দরে নামার সময় পাইলট দেখতে পান আবহাওয়া অত্যন্ত খারাপ। ৪০০ ফুট নিচের রানওয়ে দেখা যাচ্ছিল না। টানা ১৫ ঘণ্টা উড়ার পর বিমানে জ্বালানি ছিল কম। তার উপর বিমানের ল্যান্ডিং সিস্টেম বা আইএলএস`ই খারাপ হয়ে গিয়েছিল।

সামান্য ভুল হলেই যে সব শেষ। আকাশে চক্কর কাটা শুরু করে বিমানটি। কিন্তু আর কতক্ষণই বা আকাশে চক্কর কাটা সম্ভব! এ দিকে জ্বালানিও শেষ হয়ে আসছিল। পাইলট যোগাযোগ করলেন এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের সঙ্গে। পুরো বিষয়টা জানালেন। কিন্তু পরিস্থিতি এতটাই জটিল ছিল যে এটিসি-রও তখন কিছু করার ছিল না। ককপিটের ওই ছোট্ট জায়গার মধ্যে তখন দুই পাইলট মনের সঙ্গে জোর লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন। মনের ভিতরের ঝড় আর বাইরের দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া যেন কয়েক মুহূর্তের জন্য ছাপিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সেই পরিস্থিতিতে মাথা ঠাণ্ডা রাখাটাই ছিল পাইলটদের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ।

জেএফকে ছাড়া তখন অত বড় বোয়িং বিমান অবতরণের নিরাপদ বিমানবন্দর ছিল অ্যালব্যানি, বস্টন বা কানেটিকাটের ব্র‌্যাডলি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। কিন্তু জ্বালানি কম থাকায় অত দূর উড়ে যাওয়ার ঝুঁকি নিতে চাননি পাইলট। তাই জেএফকে`র উপর ৩৮ মিনিট চক্কর কাটার পরও আবহাওয়া ঠিক না হওয়ায় সম্পূর্ণ নিজস্ব বুদ্ধি এবং দক্ষতায় জেএফকে`র পাশে তুলনামূলক ছোট বিমানবন্দর নেওয়ার্কে এআই–১০১ অবতরণ করান পাইলট।

অমৃতবাজার/মিঠু