ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মহাভারতের যুগে ভারতে ইন্টারনেট ছিল!


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:১৩ পিএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৮, বুধবার
মহাভারতের যুগে ভারতে ইন্টারনেট ছিল! ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব

লক্ষাধিক বছর আগেই ভারতে ইন্টারনেট ও উপগ্রহের ব্যবহার ছিল! নইলে সঞ্জয় (শ্রী কৃষ্ণের আরেক নাম) কী ভাবে অন্ধ ধৃতরাষ্ট্রকে কুরুক্ষেত্র যুদ্ধের মাঠে না গিয়েও ঘরে বসে সবিস্তার শুনিয়েছিলেন? ইন্টারনেট ও উপগ্রহরে কল্যাণেই তিনি এটি পেরেছিলেন। এ অদ্ভুত দাবি ত্রিপুরার নতুন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের।

মঙ্গলবার আগরতলার প্রজ্ঞা ভবনে কম্পিউটার সংক্রান্ত একটি সরকারি কর্মশালায় যোগ দেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি ইন্টারনেট এবং উপগ্রহ নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে একপর্যায়ে বলেন, ‘ওসব বিষয় (ইন্টারনেট, উপগ্রহ, তথ্যপ্রযুক্তি) ভারতে লক্ষাধিক বছর ধরে রয়েছে। আমাদের সংস্কৃতি অনেক ঐতিহ্যশালী।’

এরপরই তিনি দাবি করেন, ‘মহাভারতের সময়েই ভারতে ইন্টারনেটের ব্যবহার ছিল। সে কারণেই তো সঞ্জয় (শ্রী কৃষ্ণের আরেক নাম) হস্তিনাপুরে দাঁড়িয়ে কুরুক্ষেত্রের সমস্ত বর্ণনা অন্ধ ধৃতরাষ্ট্রকে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে শোনাতে পেরেছিলেন।’

ত্রিপুরার মুখ্রমন্ত্রীর মতে, ইন্টারনেট বা সফটওয়ার প্রযুক্তি তাদের অবদান বলে আমেরিকা দাবি করলেও আসলে এসব ভারতীয় প্রযুক্তি। মূলত সে কারণেই এই সংক্রান্ত ক্ষেত্রে ও বড় বড় কোম্পানিতে বেশির ভাগ কর্মীই ভারতীয়।’

বিপ্লবের দাবি, একটা সময়ে গোটা বিশ্বে ভারত প্রযুক্তিগত ভাবে সেরা ছিল। বিশ্বকে টেক্কা দেওয়ার মতো প্রযুক্তি ভারতের কাছে ছিল। কিন্তু সেই স্বর্ণযুগ একটা সময়ে এসে থমকে যায়। ভারত ফের তার সেই প্রযুক্তি-যাত্রা শুরু করেছে। সেই কারণেই গোটা বিশ্ব জুড়ে ভারতীয় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারদের এত কদর। এত রমরমা। ভারত তার হারানো গৌরব ফের ফিরিয়ে আনছে।’

কর্মশালায় মণিপুর, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ডের সংশ্লিষ্ট দফতরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সূত্র : ইকোনোমিক টাইমস, এনডিটিভি

অমৃতবাজার/সুজন