ঢাকা, রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

স্বামী বা প্রেমিক অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও প্রকাশ করলে কী করবেন?


অমৃতবাজার ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৬:১৬ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার
স্বামী বা প্রেমিক অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও প্রকাশ করলে কী করবেন?

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুক, ই-মেইল, ইমু, হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট। দিনেদিনে এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। পরিবার, বন্ধু-বান্ধবসহ বিভিন্ন জনের সঙ্গে যোগাযেগের জন্য, বিশেষ করে যারা দেশের বাইরে অবস্থান করেন, তাদের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর বিকল্প নেই। তবে বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো নিয়ে আতংকেরও শেষ নেই।

প্রায় শোনা যায় যে, শুধু প্রেমিক-প্রমিকা নয় এখন স্বামী বিবাহ বিচ্ছেদের পর ক্রোধেরবশবর্তী হয়ে তাদের শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও অনলাইনে ছেড়ে দিচ্ছে। এতে বিপাকে পড়ছে নারীরা। আবার দেখা যাচ্ছে, কোনো কোনো ক্ষেত্রে এ সকল নারীদের হত্যার হুমকি দেয়া হয়। নারী-পুরুষের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও, ছবি ও ফেসবুকহ্যাকসহ সাইবার ক্রাইমের বিভিন্ন জটিল সমস্যা, মামলা করা, মামলার তদন্ত, পরামর্শ, হ্যাকার চিহ্নিত করা, গ্রেফতার করা ও হ্যাক হওয়া ফেসবুক উদ্ধারসহ বিভিন্ন সেবা দিয়ে থাকেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিসিটিসি) ইউনিটের সাইবার ক্রাইম বিভাগ।

সিসিটিসি`র একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ডেপুটি কমিশনার বলেন, স্বামী বা প্রেমিক অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও, ছবি অনলাইলে ছেড়ে দিলে এর শাস্তি খুবই ভয়াবহ। চলুন জেনে নেই স্বামী বা প্রেমিক অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি বা ভিডিও প্রকাশ করলে কী করবেন?

হেল্প ডেস্ক:
যদি স্বামী বা প্রেমিক অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি বা ভিডিও প্রকাশ করে, তখন আপনি সিসিটিসি`র ক্রাইম বিভাগের হেলফ ডেস্কের সহায়তা নিতে পারেন। হেল্প ডেস্কের রয়েছে দুইটি মোবাইল নম্বর। পরামর্শ বা সহযোগিতার জন্য আপনি ফোন করতে পারেন-০১৭৬৯৬৯১৫০৯ অথবা ০১৭৬৯৬৯১৫০৯ নম্বরে। সিসিটিসি`র এই হেল্প ডেস্ক আপনাকে সহায়তা দেবে সপ্তাহে সাত দিন।

পরামর্শ:
পুলিশ অভিযোগটি শোনার পর আপনাকে পরামর্শ দেবে আপনি কী করবে। যদি মামলা করতে হয়, তবে আপনাকে সহযোগিতা করবে পুলিশ প্রশাসন।

ছবি ও ভিডিও উদ্ধার:
সিসিটিসি`র এই বিভাগ অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি, ভিডিও উদ্ধারে সহযোগিতা করবে। এছাড়া আসামি গ্রেফতারে সার্বিক সহযোগিতা পাবেন।

মামলা ও মামলা তদন্ত:
আসামি ধারই শেষ নয়, পরবর্তীতে আপনাকে আইনি সহায়তা দেবে পুলিশ। যেমন আপনার ছবি, ভিডিও উদ্ধার ও আসামির বিরুদ্ধে মামলা ও তদন্ত করবে পুলিশ।

গোপনীয়তা রক্ষা:
পুলিশ আপনাকে সহায়তা দেবে এবং মামলা তদন্তের ক্ষেত্রে আপনার সব ধরনের গোপনীয়তা রক্ষা করা হবে।

যোগাযোগ:
যদি আপনি চান স্বশরীরে সিসিটিসি`র সাইবার ক্রাইম বিভাগে সরাসরি যোগাযোগ করবে। যোগাযোগ করার জন্য প্রথমে উপরে উল্লিখিত নম্বরে ফোন দেয়ার পর পুলিশ সদর দফতরে স্বশরীরে যোগাযোগ করতে হবে।

নারী পুলিশের সহায়তা:
নারীদের পরামর্শ দেয় সিসিটিসি`র সাইবার ক্রাইম বিভাগ, এছাড়া মামলা তদন্ত ও সব প্রকার আইনি সহায়তা দেয়ার জন্য নারী পুলিশও রয়েছে।

অমৃতবাজার/সবুজ